kalerkantho


ময়মনসিংহে বখাটের ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্রী আহত, আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ   

২১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



ময়মনসিংহ শহরের বাঘমারা এলাকায় বখাটের ছুরিকাঘাতে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। বর্তমানে সে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। গত রবিবার বিকেলে মেয়েটি প্রাইভেট পড়ে বাসায় ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটানো হয়। মেয়েটিকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করছিল ওই বখাটে।

ঘটনার শিকার মেয়েটির বাবা জানান, তাঁর মেয়ে স্থানীয় মুকুল নিকেতন স্কুলে পড়ে। এক বছরের বেশি সময় ধরে তাঁর মেয়েকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিল বাঘমারা এলাকার ইউসুফ হোসেনের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন। এ বিষয়ে সাজ্জাদের পরিবারকে বিষয়টি জানালেও কোনো প্রতিকার পাওয়া যায়নি। সব শেষ গত রবিবার বিকেলে প্রাইভেট পড়ে বাসায় ফেরার সময় তাঁর মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে সাজ্জাদ। এ সময় সঙ্গে থাকা তাঁর ছেলে প্রতিবাদ করলে তাকে মারধর করা হয়। পরে তাঁর মেয়েকে ছুরিকাঘাত করা হয়। সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। এ সময় সাজ্জাদের মা-বাবাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক আবাসিক সার্জন ডা. মো. জাকির হোসেন বলেন, মেয়েটি আশঙ্কামুক্ত। তবে তাকে অন্তত ১৫ দিন হাসপাতালে ভর্তি থাকতে হবে।

এদিকে এ ঘটনায় জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি মনিরা বেগম অনু ও সাধারণ সম্পাদক ফাহমিদা ইয়াসমীন রুনাসহ অন্য নেতারা গতকাল সোমবার দুপুরে আহত মেয়েটিকে দেখতে প্রথমে হাসপাতালে যান। পরে তাঁরা পুলিশ সুপারের সঙ্গে দেখা করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। তা ছাড়া ওই ঘটনার প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার মহিলা পরিষদ মানববন্ধন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় বখাটে সাজ্জাদের বাবা ইউসুফসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বখাটে সাজ্জাদকে আটকের চেষ্টা চলছে।

 



মন্তব্য