kalerkantho


তথ্যমন্ত্রী বললেন

গুজব-মিথ্যাচার শক্ত হাতে দমন করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জানালা খোলা থাকবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তবে তিনি বলেছেন, ‘সামাজিক গণমাধ্যম কখনই গুজব রটনা বা মিথ্যাচারের হাতিয়ার নয়। সামাজিক গণমাধ্যমকে রক্ষার জন্যই যারা এর অপব্যবহার করে, তাদের বিরুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণুনীতি অবলম্বন আবশ্যক। মিথ্যাচার ও গুজব রটনাকারীদের শক্ত হাতে দমন করতে হবে।’

গতকাল রবিবার দুপুরে ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজম সেন্টার, বাংলাদেশ আয়োজিত ‘ফেসবুকে গুজব এবং গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

রাজধানীর কাকরাইলে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) কার্যালয়ের সেমিনার হলে এই গোলটেবিল বৈঠক হয়।

পিআইবির মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সাংবাদিক সৈয়দ ইসতিয়াক রেজা, আশীষ কুমার, রাশেদ আহমেদ, দীপ আজাদ প্রমুখ আলোচনায় অংশ নেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গণতন্ত্রের শত্রুরা এখনো একই কৌশল অবলম্বন করছে। তারা এখন আশ্রয় নিচ্ছে সামাজিক গণমাধ্যমের। একটি মহল বা কতিপয় ব্যক্তি, যারা নীতিগতভাবে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে ও একাত্তরের খুনিদের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে, এরা হচ্ছে একটা সিন্ডিকেটেড বা সংগঠিত চক্র। এদের দমন করার বিকল্প নেই।’

শোক প্রকাশ

সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার ও অবসরপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ফারুকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ ও তথ্যসচিব আবদুল মালেক।

মোহাম্মদ ফারুক বার্ধক্যজনিত কারণে গতকাল সকালে ঢাকায় নিজ বাসায় মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০।

শোক বার্তায় তাঁরা বলেন, মোহাম্মদ ফারুকের জীবনাবসানে দেশ একজন নিবেদিতপ্রাণ কর্মী হারাল। এ সময় তাঁরা প্রয়াতের আত্মার শান্তি কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 



মন্তব্য