kalerkantho

বিএনপি না এলে জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচন করবে

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

২০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএনপি নির্বাচনে গেলে মহাজোটের সঙ্গে নির্বাচনে যাবে জাতীয় পার্টি। আর বিএনপি না গেলে ৩০০ আসনে আওয়ামী লীগের বিপক্ষে নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি—এমন কথা বলেছেন দলের চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। পবিত্র ঈদুল আজহা উদ্‌যাপন ও দলীয় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে পাঁচ দিনের সফরের দ্বিতীয় দিনে কুড়িগ্রাম সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এ ছাড়া তিনি আরো বলেন, ‘বিএনপির শাসনামলে বিনা অপরাধে আমাকে ছয় বছর, এমনকি আমার স্ত্রী-সন্তানকেও জেল খাটতে হয়েছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচন হলে আমাদের নির্বাচন করার প্রস্তুতি রয়েছে।’ তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে যে মিনি ক্যাবিনেট গঠন করা হবে সেখানে জাতীয় পার্টিরও সদস্য থাকবে। তবে কাকে সেই মন্ত্রিসভায় নেওয়া হবে তা এখনো ঠিক করা হয়নি। তিনি আরো বলেন, ‘কুড়িগ্রাম আমার জন্ম স্থান। এখানে কোনোবারেই আমি নির্বাচনে হারিনি। আগামী দিনেও ভালো কাউকে দেখে দলের পক্ষ থেকে প্রার্থী করা হবে।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম-১ আসনের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান, কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. আক্কাছ আলী সরকার, কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট মেজর (অব.) আব্দুস সালাম, নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য শওকত আলী চৌধুরী, জাতীয় পার্টির সদস্যসচিব রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

পরে এরশাদ তাঁর কূটনৈতিক উপদেষ্টা সাবেক রাষ্ট্রদূত ও মেজর (অব.) আশরাফ উদ দৌলা তাজের বাড়ি চিলমারীতে যান। সেখানে এক মতবিনিময়সভায় বলেন, ‘আমি এই অঞ্চলের মানুষ। আপনারা জাতীয় পার্টির উন্নয়ন ও শাসন দেখেছেন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির শাসনও দেখছেন। আর জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে দেশের সবাই নিরাপদ। আমরা জেলা উপজেলা করেছি। এই কুড়িগ্রাম জেলাও আমরা করেছি।’

 

মন্তব্য