kalerkantho


কক্সবাজার সৈকতে নেমে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মৃত্যু

মনোহরদীতে পুকুরে ডুবে মারা গেল তিন শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার ও নরসিংদী প্রতিনিধি   

১৯ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে গোসল করতে নেমে রাজধানী ঢাকার ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএর এক ছাত্র মারা গেছেন। গতকাল শনিবার সকালে সৈকতের লাবণী পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে। ওই ছাত্রের নাম ইফতেখারুল আলম (২৫)। তিনি ফেনী সদর উপজেলার দুলসর্দা এলাকার মো. ইউনুছ আলীর ছেলে।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার ফজলে রাব্বি জানান, দুই দিন আগে ঢাকা থেকে ইফতেখারসহ চার বন্ধু কক্সবাজারে বেড়াতে আসেন। তাঁরা সাগরপারের একটি আবাসিক হোটেলে ওঠেন। গতকাল সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সাগরের লাবণী পয়েন্টে চার বন্ধু গোসল করতে নামেন।

কক্সবাজার বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির কর্মী মাহবুব আলম জানান, সৈকতে গোসল করার একপর্যায়ে ইফতেখারুলের নাকে ও কানে পানি ঢুকে যায়। এ সময় তিনি রক্ত বমি করেন এবং একপর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরে দায়িত্বরত ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্য ও বিচ কর্মীদের সহযোগিতায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসারত অবস্থায় সকাল ১০টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে নরসিংদীর মনোহরদীতে পুকুরে ডুবে দুই বোনসহ তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বিকেলে উপজেলার চরমান্দালিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো চরমান্দালিয়া এলাকার মো. আসাদ মিয়ার মেয়ে রিক্তা আক্তার (১০) ও  শিখা আক্তার (৮) এবং একই এলাকার মিজানুর রহমানের মেয়ে মিলি আক্তার (৭)।

মনোহরদী থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভূইয়া জানান, পাটের চট ধুতে ওই শিশুরা বাড়িসংলগ্ন পুকুরে যায়। পুকুর পারে পিছলে একজন পড়ে গেলে তাকে বাঁচাতে গিয়ে অন্য দুজনেরও মৃত্যু হয়। প্রত্যক্ষদর্শী এক প্রতিবন্ধী শিশু ইশারায় ঘটনাটি লোকজনকে জানায়। পরে স্থানীয়ারা তিনজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 



মন্তব্য