kalerkantho


খালেদার জন্মদিন উদ্‌যাপিত

জীবন বাজি রেখে লড়ার আহ্বান ফখরুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



জীবন বাজি রেখে লড়ার আহ্বান ফখরুলের

খালেদা জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে বক্তব্য দেন মির্জা ফখরুল। ছবি : কালের কণ্ঠ

চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ৭৪তম জন্মদিন উদ্‌যাপন করেছে বিএনপি। এ উপলক্ষে গতকাল বুধবার সারা দেশে জেলা-উপজেলায় খালেদা জিয়ার দীর্ঘায়ু ও আশু রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করে বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠন। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছর কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন খালেদা জিয়া। দলের শীর্ষ নেত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে এই প্রথমবারের মতো কেক কাটার আনুষ্ঠানিক কোনো কর্মসূচি নেয়নি দলটি।

জন্মদিন পালন কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ১১টায় নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এবং সন্ধ্যায় গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল হয়েছে। এ ছাড়া পূর্বঘোষণা অনুযায়ী সারা দেশে জেলা-উপজেলায় খালেদা জিয়ার দীর্ঘায়ু ও আশু রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল হয়।

নয়াপল্টনে আয়োজিত দোয়া মাহফিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আপনাদের অনেকেরই মনে আছে, ১/১১-এর অবৈধ সরকারের চক্রান্তে দেশনেত্রী যখন কারাগারে যান, সেই কারাগারে থাকা অবস্থায় তাঁর সেই নীরব আন্দোলনে তৎকালীন ফখরুদ্দীন-মইনুদ্দীনের সরকার বাধ্য হয়েছিল তাঁদের মুক্তি দিতে ও পরবর্তী সময়ে জরুরি অবস্থা তুলে নিতে। আজকে তাঁদের চেয়েও খারাপ হচ্ছে এই ফ্যাসিস্ট সরকার। তারা (সরকার) সাধারণ মানুষের সমস্ত অধিকার হরণ করেছে।’

ফখরুল বলেন, ‘এই অবস্থা থেকে উত্তরণে আজকে রাজনৈতিক দল হিসেবে আমাদের দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে—আমাদের গণতন্ত্রের নেতা-মাতা খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য, গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য, দেশের মানুষের অধিকারকে পুনঃ প্রতিষ্ঠা করার জন্য প্রাণপণ জীবন বাজি রেখে লড়াই করতে হবে, সংগ্রাম করতে হবে। সেই সংগ্রামে আমাদের জয়ী হতে হবে। এই সরকারকে বাধ্য করতে হবে একদিকে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে আর অন্যদিকে এই দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য আগামী দিনে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় সংসদ ভেঙে দিয়ে জনগণের একটি সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠান করা।

খালেদা জিয়ার দীর্ঘায়ু ও রোগমুক্তি কামনা করে তাঁকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আনার শপথ নেওয়ার কথাও বলেন মির্জা ফখরুল। প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন এ্যানির পরিচালনায় দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ও বক্তব্য দেন।

দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় বিএনপির উদ্যোগে এই মিলাদ ও দোয়া মাহফিল হয়। এতে দলের এ জেড এম জাহিদ হোসেন, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, রুহুল কবীর রিজভী, খায়রুল কবীর খোকন, ফজলুল হক মিলন, এমরান সালেহ প্রিন্স, বিলকিস জাহান শিরিন, সানাউল্লাহ মিয়া, শিরিন সুলতানা, জয়নাল আবেদীন, মীর শরাফত আলী সপু, ওবায়দুল ইসলাম, কাজী আবুল বাশার, আমিরুল ইসলাম আলীম, আমিরুজ্জামান খান শিমুল, হায়দার আলী লেলিনসহ মহানগর ও অঙ্গসংগঠনের দুই শতাধিক নেতাকর্মী অংশ নেয়।

 



মন্তব্য