kalerkantho


সন্দেহে উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররা

ভারতীয় কসমস ব্যাংকের ৯৪ কোটি রুপি হ্যাকড

বাংলাদেশের রিজার্ভ চুরি এবং পোল্যান্ডের ব্যাংক হ্যাকিংয়ের সঙ্গেও জড়িত এই গ্রুপ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



ভারতের ১১২ বছরের পুরনো কসমস ব্যাংকের ৯৪ কোটি রুপি হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা। সুইফট ব্যবহার করে হাতানো এই টাকা এরই মধ্যে হংকংয়ে সরিয়ে নিয়েছে তারা। উত্তর কোরিয়ার ভয়ংকর হ্যাকার গ্রুপ লাজারাস এই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। বাংলাদেশের রিজার্ভ চুরি এবং পোল্যান্ডের ব্যাংক থেকে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার সঙ্গেও এই গ্রুপ জড়িত বলে জানিয়েছে দি ইকোনমিক টাইমস।

গতকাল বুধবার পত্রিকাটির অনলাইন ভার্সনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কসমস ব্যাংক থেকে ৯৪ কোটি রুপি হাতিয়ে নিতে হ্যাকাররা গত সপ্তাহে বারবার আক্রমণ করেছে। গত শনিবার বিকেল ৩টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ২৮টি দেশের এটিএম বুথ থেকে ১২ হাজারবার অর্থ তুলে তারা প্রায় ৭৮ কোটি রুপি তুলে নিয়েছে। ওই দিন একই সময়ে ভারতের বিভিন্ন স্থানে থাকা এটিএম বুথ থেকে দুই হাজার ৮০০ বারে আড়াই কোটি রুপি হাতিয়ে নিয়েছে তারা। সোসাইটি ফর ওয়ার্ল্ডওয়াইড ইন্টারব্যাংক টেলিকমিউনিকেশনস (সুইফট) সুবিধা ব্যবহার করে গত সোমবার সাড়ে ১৩ কোটি রুপি হংকংয়ে স্থানান্তর করেছে হ্যাকাররা। ব্যাংকের প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করে ব্যাংক বন্ধ থাকার সময় তারা এটিএম বুথ ব্যবহার করে এভাবে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।

কসমস ব্যাংকের চেয়ারম্যান মিলিন্দ ক্যালে বলেছেন, “আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত আছে। আমাদের নিরাপত্তাব্যবস্থায় কোনো ত্রুটি নেই। ব্যাংক সব ধরনের ইন্টারনেট ব্যাংকিং আপাতত বন্ধ রেখেছে। হ্যাকারদের আক্রমণে ব্যাংকের ‘কোর ব্যাংকিং সিস্টেমে’র কোনো ক্ষতি হয়নি, যেখানে গ্রাহকদের লেনদেনের হিসাব রাখা হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে চার কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।”

ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ঘটনার ইন্সপেকশন করছে। ইন্সপেক্টর ভিসাল গালান্দি বলেছেন, আইটি আইনের আওতায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে একটি মামলা করা হয়েছে। সাইবার ক্রাইম সেল এটি তদন্ত করবে।



মন্তব্য