kalerkantho


সড়কে তারেক মাসুদের মৃত্যু

চার কোটি ৬১ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতেই হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদের পরিবারকে চার কোটি ৬১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৫২ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেননি আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। হাইকোর্টের রায় স্থগিত করতে বাস মালিকপক্ষের করা আবেদনের ওপর আগামী ৮ অক্টোবর আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। ফলে হাইকোর্টের রায় আপাতত বহাল রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

আদালতে চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স কম্পানির বাস মালিক পক্ষে শুনানি করেন কামরুল হক সিদ্দিকী। আদালতে ক্যাথরিন মাসুদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন। রিলায়েন্স ইনস্যুরেন্স কম্পানির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ইমরান এ সিদ্দিকী।

হাইকোর্ট গত ৩ ডিসেম্বর এক রায়ে তারেক মাসুদের পরিবারকে চার কোটি ৬১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৫২ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশ দেন। রায়ের কপি পাওয়ার তিন মাসের মধ্যে টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়। এর মধ্যে বাসের (চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স) তিন মালিক দেবেন চার কোটি ৩০ লাখ ৮৫ হাজার ৪৫২ টাকা, বাসচালক জমির উদ্দিন দেবেন ৩০ লাখ টাকা এবং ইনস্যুরেন্স কম্পানি দেবে ৮০ হাজার টাকা। তিন মালিক সমান হারে টাকা দেবেন।

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার জোকা এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান তারেক মাসুদ, মিশুক (আশফাক) মুনীরসহ পাঁচজন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে। ঘটনার কয়েক মাস পর ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি নিহতদের পরিবারের সদস্যরা মানিকগঞ্জে বাস মালিক, চালক ও ইনস্যুরেন্স কম্পানির বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ চেয়ে আলাদা দুটি মামলা করে। মামলায় বাসচালক, বাস মালিক ও রিলায়েন্স ইনস্যুরেন্স কম্পানিসহ পাঁচজনকে বিবাদী করা হয়।

 



মন্তব্য