kalerkantho


রাজশাহী সিটি নির্বাচন

পরস্পরকে দুষছেন লিটন-বুলবুল

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগের বিজয় বুঝতে পেরে বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে অপচেষ্টা চালাচ্ছে। জনগণকে কাছে টানতে পরিকল্পিতভাবে নিজেরাই নির্বাচনী প্রচারণায় ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। জনগণ তাদের এসব ষড়যন্ত্র বুঝে গেছে।’  

অন্যদিকে বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলছেন, ‘নির্বাচনে বিএনপির জোয়ার দেখে সরকারদলীয় প্রার্থী ভীত হয়ে পড়েছেন। নির্বাচন বাদ দিয়ে তিনি বিএনপি দমনে উঠেপড়ে লেগেছেন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ব্যবহার করে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করাচ্ছেন। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস না থাকায় তিনি এই ঘৃণ্য পথ বেছে নিয়েছেন।’

গতকাল রবিবার মেয়র পদপ্রার্থী লিটন ও বুলবুল তাঁদের নির্বাচনী প্রচারণাকালে সাংবাদিকদের  এসব কথা বলেন।

নগরের ১০ নম্বর ওয়ার্ডের হেতেমখাঁ ছোট মসজিদের সামনে থেকে গতকাল গণসংযোগ শুরু করেন লিটন। এরপর ডাক্তারের মোড়, কলাবাগান, পুরাতন বিলশিমলা এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি। পরে ১১ নম্বর ওয়ার্ডের হেতেমখাঁ কাঁচাবাজারসহ আশপাশের এলাকায় গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেন লিটন। রাজশাহীর সার্বিক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চান তিনি। এ সময় তিনি বলেন, বিএনপির গণসংযোগে ককটেল হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিশ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মন্টুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী হামলার ব্যাপারে বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে প্রমাণ পেয়েছে। তারা জানতে পেরেছে, বিএনপি নিজেরাই পরিকল্পিতভাবে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে।

এদিকে নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে গতকাল গণসংযোগ করেন বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মধ্যে হাইব্রিড নেতাকর্মী থাকায় আসল নেতারা লিটনের পক্ষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন।

 

 



মন্তব্য