kalerkantho


রোহিঙ্গা সংকট

রাজনৈতিক সমাধান ও জবাবদিহিতে গুরুত্ব জাতিসংঘ দূতের

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৯ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



রোহিঙ্গা সংকটের রাজনৈতিক সমাধান ও সংঘটিত নৃশংসতার জবাবদিহিতা—উভয়ের ওপরই জোর দিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিবের মিয়ানমারবিষয়ক বিশেষ দূত ক্রিস্টিন শ্রেনার বার্গিনার। গত রবিবার থেকে তিন দিনের বাংলাদেশ সফর শেষে জাতিসংঘের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত তাঁর বাংলাদেশ সফরে আশ্রিত রোহিঙ্গা ও স্থানীয় সম্প্রদায়ের জন্য বড় পরিসরে আন্তর্জাতিক সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। মিয়ানমার সফরের সময় তিনি নেপিডোতে শিগগিরই তাঁর প্রধান সহায়তা দপ্তর চালু করতে পরামর্শ দিয়েছেন। রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে ব্রিফ করতে তিনি নিউ ইয়র্কে যাচ্ছেন। এ ছাড়া আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিকে তিনি আবারও মিয়ানমার সফর করার পরিকল্পনা করছেন।

এদিকে জাতিসংঘ মহাসচিবের উপমুখপাত্র ফারহান হক গতকাল বুধবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে ব্রিফিংয়ে বলেছেন, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরার মতো পরিস্থিতি এখনো সৃষ্টি হয়নি। রোহিঙ্গাদের ফেরার আগে মিয়ানমারে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ার ওপর জোর দেন তিনি।

ফারহান হক আরো বলেন, ‘আমরা এ জন্য চাপ দিচ্ছি। আর আমরা এটি অব্যাহত রাখব।’

এ মাসের শুরুতে জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফরের পর জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত সফরে এসে কক্সবাজারে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করেন। বিশেষ করে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়া বাংলাদেশের সরকার, জনগণ ও স্থানীয় সম্প্রদায়কে তিনি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

জাতিসংঘ জানায়, রোহিঙ্গাদের কাছে নিপীড়নের ঘটনাগুলো শুনে ও তাদের মানসিক শক্তির কথা জেনে বিশেষ দূত আবেগতাড়িত হয়েছেন। গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘন সত্ত্বেও নিরাপত্তা ও নাগরিকত্বের নিশ্চয়তা পেলে তারা মিয়ানমারে ফিরে যেতে চায়।



মন্তব্য