kalerkantho


শান্তি রক্ষা কার্যক্রম

বাংলাদেশের সুসংহত সম্পৃক্ততার প্রশংসা করেছে জাতিসংঘ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৫ জুন, ২০১৮ ০০:০০



বিশ্বজুড়ে শান্তি নিশ্চিত করতে শান্তিরক্ষীদের মাধ্যমে বাংলাদেশের জোরালো সম্পৃক্ততার প্রশংসা করেছেন সফররত জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা কার্যক্রমবিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জ্যাঁ-পিয়েরে ল্যাক্রোইক্স। তিনি গতকাল রবিবার বিকেলে ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের কাছে এই প্রশংসা করেন।

জ্যাঁ-পিয়েরে ল্যাক্রোইক্স বলেন, ‘আমাদের মধ্যে স্পষ্ট আলোচনা হয়েছে। বিশ্বজুড়ে শান্তির জন্য বাংলাদেশের জোরালো সম্পৃক্ততা এবং শান্তি রক্ষা কার্যক্রমে জোরালো সহযোগিতার পরিপ্রেক্ষিতে সরাসরি তাঁকে (পররাষ্ট্রমন্ত্রী) ও বাংলাদেশকে আমার ধন্যবাদ জানানোর সুযোগ ছিল এই সাক্ষাৎ।’ তিনি বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত কৃতজ্ঞ এবং বিশ্বজুড়ে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের সেবার প্রতিও আমরা শ্রদ্ধাশীল।’

উল্লেখ্য, জ্যাঁ-পিয়েরে ল্যাক্রোইক্স তিন দিনের সফরে গতকাল ঢাকায় পৌঁছান। নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন এবং ঢাকায় জাতিসংঘ তথ্যকেন্দ্র জানায়, তিনি আগামী ৩ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাড়াও নেপাল, ভারত ও পাকিস্তান সফর করবেন।

বর্তমানে ১৪টি জাতিসংঘ শান্তি রক্ষা মিশনে প্রায় ৯১ হাজার পোশাকধারী সদস্য কর্মরত আছেন। এর মধ্যে এক-তৃতীয়াংশই বাংলাদেশ, নেপাল, ভারত ও পাকিস্তানের সেনা ও পুলিশ। জাতিসংঘ বলছে, শান্তি প্রতিষ্ঠায় শান্তিরক্ষীদের আত্মত্যাগ ও সেবার জন্য বাংলাদেশসহ এই দেশগুলোকে ধন্যবাদ জানানোই আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জ্যাঁ-পিয়েরে ল্যাক্রোইক্সের সফরের মূল লক্ষ্য। এ ছাড়া তিনি এই চার দেশকে জাতিসংঘের শান্তি ও নিরাপত্তা সংস্কার বিষয়ে চলমান সংস্কার কার্যক্রম এবং আরো সুনির্দিষ্ট, নিরাপদ ও শক্তিশালী শান্তি রক্ষা কার্যক্রম নিশ্চিত করতে জাতিসংঘ মহাসচিবের ‘শান্তি রক্ষা পরিকল্পনা’ বিষয়ে অবহিত করবেন।

বিমানবাহিনী প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ : জাতিসংঘ সদর দপ্তরের শান্তি রক্ষা মিশন পরিচালনা বিভাগের প্রধান আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জ্যাঁ পিয়েরে ল্যাক্রোইক্সের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাতের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছে। আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানায়, বিমানবাহিনী সদর দপ্তরে এই সাক্ষাৎকালে তাঁরা পারস্পরিক কুশল বিনিময় এবং দ্বিপক্ষীয় স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে মত বিনিময় করেন।



মন্তব্য