kalerkantho


ভারতীয় ভিসায় থাকছে না অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা

মেহেদী হাসান   

১১ জুন, ২০১৮ ০০:০০



ভারতীয় ভিসায় থাকছে না অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা

অবশেষে বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা পুরোপুরি উঠে যাচ্ছে। ভিসাব্যবস্থা সহজীকরণের অব্যাহত প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নিয়েছে ভারত। আগামী জুলাই মাসে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের বাংলাদেশ সফরে এটি আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হওয়ার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, আগামী মাসের তৃতীয় সপ্তাহে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে আসছেন। সফরকালে তিনি ঢাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন। ওই বৈঠকে নিরাপত্তা ও সীমান্ত ইস্যু বিশেষ গুরুত্ব পেতে পারে। এ ছাড়া আলোচনা হতে পারে ভারতীয় ভিসাব্যবস্থা আরো সহজীকরণ বিষয়ে।

জানা গেছে, বাংলাদেশিদের ভারতীয় ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ব্যবস্থা আরো সহজ হচ্ছে। ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার জন্য এরই মধ্যে ঢাকার বারিধারাসংলগ্ন যমুনা ফিউচার পার্কে বিশাল স্পেস ভাড়া নেওয়া হয়েছে। সেখানে প্রায় অর্ধশত কাউন্টারে একসঙ্গে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর আসন্ন ঢাকা সফরে নতুন ওই ভিসা আবেদন কেন্দ্রটি উদ্বোধন করবেন বলে কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, নতুন ওই কেন্দ্র চালুর মাধ্যমে ঢাকার গুলশানে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রটি বন্ধ হবে। নতুন ভিসাকেন্দ্রে আবেদনকারীরা উন্নততর সেবা ও আরো স্বাচ্ছন্দ্যে ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সুযোগ পাবে।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানায়, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভারতীয় ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া ও ভিসাব্যবস্থা আগের চেয়ে অনেক সহজ হয়েছে। আজ সোমবার খুলনা ও যশোরে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলোতেও আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা উঠে যাচ্ছে। ফলে আবেদনকারীদের আগে থেকে কোনো অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কূটনীতিক কালের কণ্ঠকে বলেন, বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা পুরোপুরি উঠে যাচ্ছে। এরই মধ্যে পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলোতে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা পরীক্ষামূলকভাবে তুলে নেওয়া হয়েছে। ঢাকায়ও এটি উঠে যাচ্ছে। ফলে আবেদনকারীরা ফরম পূরণ করে কর্মদিবসগুলোতে সরাসরি সেগুলো জমা দিতে পারবে।

জানা গেছে, গত বছরের ৯ জুলাই চট্টগ্রামে, ১০ সেপ্টেম্বর রাজশাহী ও রংপুরে, ১০ অক্টোবর ঢাকায় মিরপুর রোডে এবং এ বছরের ২০ মে সিলেট, ময়মনসিংহ ও বরিশালে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলোতে অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়াই সরাসরি ভিসা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ব্যবস্থা চালু হয়েছে। এ ব্যবস্থায় সবচেয়ে সুবিধা হচ্ছে পর্যটক ভিসা প্রত্যাশীদের। চিকিৎসা, ব্যবসা, সম্মেলন এবং অন্যান্য ক্যাটাগরিতে ভিসা আবেদন প্রক্রিয়ায় অ্যাপয়েন্টমেন্ট ব্যবস্থা অনেক আগেই উঠে গেছে। এ ছাড়া প্রবীণ নাগরিক ও মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরাসরি বিশেষ কাউন্টারে আবেদনপত্র জমাদান ব্যবস্থা রয়েছে। বর্তমানে ৬৫ বছর বয়সী আবেদনকারী ও মুক্তিযোদ্ধাদের পাঁচ বছরের মাল্টিপল পর্যটক ভিসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আসন্ন বাংলাদেশ সফরের সময় মুক্তিযোদ্ধাদের ভিসা আরো সহজ করার ঘোষণা আসতে পারে বলে জানা গেছে। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া ১৩ থেকে ১৯ বছর বয়সীরাও এ সুবিধার আওতায় আসবেন।

 

 



মন্তব্য