kalerkantho


মাথা মুড়িয়ে দেওয়ার মামলা

পূর্বধলায় যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করায় অবরোধ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৮ ০০:০০



ছাত্রলীগ নেতার মাথা মুড়িয়ে দেওয়ার মামলায় যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে নেত্রকোনার পূর্বধলায় বিক্ষোভ হয়েছে। স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা গতকাল শুক্রবার সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে।

এ মামলায় গত বৃহস্পতিবার রাতে নেত্রকোনা ডিবি পুলিশ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে। তাঁরা হলেন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন শওকত, স্থানীয় সংসদ সদস্য বীরপ্রতীক ওয়ারেসাত হোসেন বেলালের এপিএস সেলিম জাহাঙ্গীর ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সেক্রেটারি আ. আওয়াল তালুকদার।

এঁদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে পূর্বধলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা গতকাল সকাল ১১টা পর্যন্ত শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি ও নেত্রকোনা-পূর্বধলা সড়ক অবরোধ করে রাখে। এ ছাড়া ঢাকাগামী ‘বলাকা এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি আটকে দেয়। পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ তুলে নেয়।

এ ঘটনায় নেত্রকোনা ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক এসআই শরিফুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ছেড়ে দেওয়া হয়েছে গ্রেপ্তারকৃতদের।

উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম জানান, কোনো পরোয়ানা ছাড়াই নুরুল আমিনকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। এ ব্যাপারে জানতে গেলে গ্রেপ্তার করা হয় সেলিম জাহাঙ্গীর ও আওয়াল তালুকদারকেও।

মামলার বাদী ও পূর্বধলা উপজেলা ছাত্রলীগের উপবিভাগীয় সম্পাদক স্বপন চন্দ্র দাস বলেন, ‘পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার করে ছেড়ে দিয়েছে। এখন তারা আমাকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে।’



মন্তব্য