kalerkantho


মানিকগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

মীমাংসায় রাজি না হওয়ায় হুমকি

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৮ ০০:০০



মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কলতা গ্রামে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মামলা হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি। এদিকে বিষয়টি এক লাখ টাকায় মীমাংসা করার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নির্যাতিতার ভাই জানান, গত মঙ্গলবার তাঁর বোন বাবার সঙ্গে কলতা গ্রামে পিসির বাড়িতে পূজা অনুষ্ঠানে যায়। রাত ৮টার দিকে অনুষ্ঠানস্থল থেকে তাকে ডেকে নিয়ে যায় একই গ্রামের জসিম মিয়ার ছেলে জনি (২০)। পরে তাকে জনি, একই গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে রুবেল ও ইয়াদ আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম ধর্ষণ করে। স্থানীয় কয়েকজন ধর্ষকদের হাতেনাতে ধরে ফেললেও পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্থানীয় ইউপি সদস্য মজিবর রহমানসহ মাতবররা এক লাখ টাকার বিনিময়ে মীমাংসার প্রস্তাব দেন। এতে রাজি না হওয়ায় কলতা গ্রামের তাদের আত্মীয়-স্বজনকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

ইউপি সদস্য মজিবুর রহমান আপসের প্রস্তাব দেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আসামিদের হাতেনাতে ধরেছিল ইউনুছ, রফিক ও শাহজাহান। তারাই আসামিদের ছেড়ে দেয়।

 



মন্তব্য