kalerkantho


ভালুকায় ভুয়া চিকিৎসক গ্রেপ্তার

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২০ মে, ২০১৮ ০০:০০



ময়মনসিংহের ভালুকায় পুলিশের হাতে ধরা খেয়েছেন আশরাফ উদ্দিন (জুলফিকার) নামের এক ভুয়া চিকিৎসক। গতকাল শনিবার সকালে স্থানীয় একটি ক্লিনিক থেকে তাঁকে আটক করা হয়।

জুলফিকার নিজেকে বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ উপজেলার নিশানবাড়িয়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে পরিচয় দিয়েছেন। তাঁর ভাষ্য, তিনি জয়দেবপুরের জয়নাতলী এলাকায় থাকেন।

থানা সূত্রে জানা যায়, গত চার মাস ধরে ভালুকা সদরের ‘নিউ সেবা হসপিটাল অ্যান্ড ল্যাবে’ কিডনি, মেডিসিন ও ডায়াবেটিস রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে ‘চিকিৎসা’ দিয়ে আসছিলেন জুলফিকার। গতকাল সকালে ভালুকা মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার আবদুল মান্নান তালুকদার, এএসআই আবদুল আলী ও এএসআই শাহ আলম জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জুলফিকারকে ওই ক্লিনিক থেকে আটক করেন। এ সময় তাঁর কাছ থেকে প্যাড, ভিজিটিং কার্ড, একটি সিল ও চিকিৎসা যন্ত্রপাতি উদ্ধার করা হয়। প্যাডে জুলফিকারে পরিচয় দেওয়া আছে, ‘এমবিবিএস (ঢাকা), পিএইচডি (জাপান), পোস্ট ডক্টরাল ফেলো অব জাপান, এক্স অনারারি সার্জন মেডিসিন ও কিডনি বিভাগ, পিজি হাসপাতাল, ঢাকা’। তা ছাড়া সিলে তাঁর নাম ‘আশরাফ উদ্দিন মল্লিক’ উল্লেখ আছে।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদে জুলফিকার নিজেকে এইচএসসি পাস বলে জানিয়েছেন। পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা করে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে। ভালুকা মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার আবদুল মান্নান তালুকদার বলেন, ‘একেক স্থানে একেক পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে ওই ব্যক্তি। রবিবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।’

 

 


মন্তব্য