kalerkantho


নেপালি প্রধানমন্ত্রীকে ফোন, ভিডিও বার্তায় সহযোগিতার আশ্বাস শেখ হাসিনার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



নেপালের কাঠমাণ্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের বিমান বিধ্বস্তের পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী খাড়গা প্রসাদ শর্মা অলির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি এ সময় নেপালে একটি সাহায্যকারী দল পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সিঙ্গাপুরে সফররত শেখ হাসিনা স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে টেলিফোন করেন। এ সময় নেপালের প্রধানমন্ত্রী হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেন। খাড়গা প্রসাদ শর্মা অলি জানান, দুর্ঘটনা ঘটার পর তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।

প্রেস সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ত্রিভুবন বিমানবন্দর খোলার সঙ্গে সঙ্গে তিনি সাহায্যকারী দল নেপালে পাঠাবেন। তিনি আরো বলেছেন, প্রয়োজনীয় যত রকমের সাহায্য দরকার বাংলাদেশ তা করবে।

পরে সিঙ্গাপুর থেকে এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেপাল সরকারকে সব ধরনের সহযোগিতার কথা বলেন।  ভিডিও বার্তার শুরুতে শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই ঘটনায় আমি অত্যন্ত মর্মাহত। দুর্ঘটনার পরপরই নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে।’ তিনি বলেন, সেখানে আমাদের বাংলাদেশের যাত্রী ছিলেন, নেপালের যাত্রী ছিলেন, চায়না, মালদ্বীপসহ কয়েকটি দেশের যাত্রী ছিলেন। আহতদের নেপালের পাঁচটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে, তার কাছেই সেনা ছাউনি। ফলে নেপালের সেনাবাহিনী তাত্ক্ষণিক উদ্ধারকাজ শুরু করে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতও সেখানে ছুটে যান।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন,

‘যাঁরা এখনো জীবিত

আছেন, তাঁদের চিকিৎসাসহ যা যা প্রয়োজন সব করতে আমরা প্রস্তুত আছি।’

বাংলাদেশেও তিনবাহিনীর প্রধান থেকে শুরু করে সশস্ত্রবাহিনীর প্রিন্সিপাল স্ট্যাফ অফিসার এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা এ ব্যাপারে যোগাযোগ রাখছেন। কি কি ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে পররাষ্ট্রমন্ত্রণায় সে বিষয়ে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে এক শোক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমান দুর্ঘটনায় নিহতদের জন্য গভীর

শোক ও দুঃখ প্রকাশ

করেন। তিনি নিহতদের আত্মার মাগফিরাত ও

শান্তি কামনা এবং

আহতদের দ্রুত সুস্থতা

কামনা করেন।



মন্তব্য