kalerkantho


মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে সড়কসচিব

মহাসড়ক সংস্কারকাজ ৪০ শতাংশ সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সারা দেশে বিধ্বস্ত মহাসড়ক সংস্কারকাজ ৪০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী জুনের মধ্যে শতভাগ কাজ সম্পন্ন হবে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম গতকাল সোমবার দুপুরে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। রোজার ঈদ সামনে রেখে মহাসড়ক রক্ষণাবেক্ষণে নেওয়া কর্মসূচির বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন তিনি।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১৬ জুন রোজার ঈদ হতে পারে। ঈদ যাত্রায় যাতে সড়কে কোনো ভোগান্তি না হয়, সে জন্য মেরামতের কাজ এগিয়ে নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে সড়কসচিব বলেন, ‘আমাদের কর্মযজ্ঞ চলছে। পত্রপত্রিকায় বলা হচ্ছে রাস্তার এই (খারাপ) অবস্থা। এ অবস্থার উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি জুনের মধ্যে দৃশ্যমান হবে।’

সড়কসচিব বলেন, চলতি অর্থবছরে মহাসড়ক রক্ষণাবেক্ষণ খাতে এক হাজার ৭০৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় সওজ অধিদপ্তরের অনুকূলে ১৩ হাজার ৭০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

বন্যা, অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ধসে মহাসড়ক গত বছর বেশি বেহাল হয়েছিল জানিয়ে সচিব বলেন, বন্যা ও অতিবর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত মহাসড়ক রক্ষণাবেক্ষণে অতিরিক্ত এক হাজার ১৬৬ কোটি টাকার চাহিদা অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের ২৩টি টিম সংস্কারকাজ তদারকি করছে। সচিব বলেন, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেনে উন্নীত করার কাজ ৬১ শতাংশ শেষ হয়েছে।

দুদকের প্রতিবেদনের যৌক্তিকতা আছে : সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রকৌশলী ও কর্মকর্তারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত বলে দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রতিবেদনের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে সড়কসচিব মো. নজরুল বলেন, ‘রবিবার দুদকের রিপোর্ট আমার হাতে এসেছে। দেখেশুনে ব্যবস্থা নেব। দুদক সুনির্দিষ্ট করে কোনো ইঞ্জিনিয়ারের নাম বলেনি, কোথায় এমন ঘটনা ঘটেছে তাও বলেনি, তবে তাদের কথার যৌক্তিকতা আছে।’

 

 


মন্তব্য