kalerkantho


বাংলাদেশ প্রতিদিনের কমার্শিয়াল ম্যানেজার মহিউদ্দিন আহমেদের দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বাংলাদেশ প্রতিদিনের কমার্শিয়াল ম্যানেজার মহিউদ্দিন আহমেদের দাফন সম্পন্ন

বাংলাদেশ প্রতিদিনের কমার্শিয়াল ম্যানেজার মহিউদ্দিন আহমেদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় খিলগাঁও তালতলা রিয়াজবাগ কবরস্থানে তাঁর লাশ দাফন করা হয়েছে। এর আগে বাদ জোহর মহিউদ্দিন আহমেদের মরদেহ তাঁর দীর্ঘদিনের কর্মস্থল বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া কমপ্লেক্সে আনা হয়। তাঁকে শেষবারের মতো দেখতে ভিড় করেন শোকার্ত সহকর্মীরা। সেখানে তাঁর দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এখানে জানাজায় ইমামতি করেন মরহুমের ছোট ভাই হাফেজ জসীম উদ্দিন আহমেদ। এর আগে সকাল ৯টায় খিলগাঁওয়ে নিজ বাসভবনের সামনে মরহুমের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

মিডিয়া কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে জানাজায় অংশ নেন বসুন্ধরা গ্রুপের মিডিয়া উপদেষ্টা আবু তৈয়ব, নিউজ টোয়েন্টিফোরের নির্বাহী পরিচালক হাসনাইন খুরশিদ, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের, উপসম্পাদক মাহমুদ হাসান, বাণিজ্যিক উপদেষ্টা খন্দকার কামরুল হক শামীম, কালের কণ্ঠ’র বিজ্ঞাপন বিভাগীয় প্রধান জেড এম আহমেদ প্রিন্স, বাংলাদেশ প্রতিদিনের বার্তা সম্পাদক কামাল মাহমুদ, সিটি এডিটর শিমুল মাহমুদ, কালের কণ্ঠ’র সার্কুলেশন বিভাগীয় প্রধান মীর আবুল হাছান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিজ্ঞাপন বিভাগের জিএম মাসুদুর রহমান ও সার্কুলেশন বিভাগের জিএম বিল্লাল হোসেন মন্টু, মরহুমের ছেলে ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমেদ ও ইশতিয়াক আহমেদ। এ ছাড়া বিভিন্ন বিজ্ঞাপনী সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তারা, ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের শীর্ষ কর্মকর্তা, পত্রিকা, অনলাইন পোর্টাল, টেলিভিশন ও রেডিওর সিনিয়র সাংবাদিক এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানাজায় অংশ নেন।

জানাজার আগে মরহুমের ছেলে ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমেদ রাজীব বলেন, ‘আমার বাবা সন্ধ্যায় কাজ শেষে অফিস থেকে বাসায় যাওয়ার পথে গাড়িতে বুকে ব্যথা অনুভব করেন; কিন্তু যানজটের কারণে তাত্ক্ষণিক হাসপাতালে যেতে পারেননি। প্রায় দেড় ঘণ্টা রাস্তায় যানজটে আটকা পড়ে ছিলেন তিনি।’

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান মহিউদ্দিন আহমেদ।



মন্তব্য