kalerkantho


সিলেটে এক রাতে দুই যুবক খুন

সিলেট অফিস   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সিলেটে এক রাতে দুজন খুন হয়েছেন। নগরের সুবিদবাজার এলাকায় বাসা থেকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে শিমুল দেব (৩২) নামে এক যুবককে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত শিমুল সুবিদবাজার মিয়া ফাজিল চিশত এলাকার সমরেশ দেবের ছেলে। অন্যদিকে জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলায় একইভাবে ছুিরকাঘাতে খুন হয়েছে আফছার হোসেন (১৭) নামের এক যুবলীগকর্মী। নিহত আফছার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের উজান মেহেরপুর গ্রামের এনাম উদ্দিনের পুত্র। গত শনিবার রাতে পৃথক এ দুটি ঘটনা ঘটে।

সুবিদবাজারে শিমুল দেব হত্যার ঘটনায় জড়িত একজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলাও করেছেন। তবে গোলাপগঞ্জের আফছার হত্যার সঙ্গে জড়িত কেউ এখনো গ্রেপ্তার হয়নি। ওই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহত শিমুলের পরিবারের বরাত দিয়ে স্থানীয়রা জানায়, পূর্ববিরোধের জের ধরে শনিবার রাত ১২টার দিকে কয়েকজন যুবক শিমুলকে বাসা থেকে ডেকে নেয়। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে এলাকার নৈশপ্রহরী সুবিদবাজারের নুরানী আবাসিক এলাকার দস্তিদার দিঘির ঘাটে একটি মরদেহ দেখে মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ এসে রাত ২টার দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়।

গতকাল রবিবার দুপুরে নিহতের ভাই নন্দন দেব বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় ফজল বক্ত নামে একজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় আরো চার-পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। এর আগেই পরিবারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ফজল বক্তকে ফাজিল চিশত এলাকার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে।

ফজলকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে এয়ারপোর্ট থানার ওসি মোশাররফ হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃত ফজলকে কোতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। কোতোয়ালি থানার ওসি গৌছুল হোসেন জানান, ফজলকে পুলিশ আদালতে সোপর্দ করে পাঁচ দিনের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করেছে। তবে আবেদনের ব্যাপারে শুনানি হয়নি।

নিহত শিমুলের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শিমুল ও ফজল একসময় পরস্পরের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। কিন্তু কয়েক দিন থেকে তাদের বন্ধুত্বে টানাপড়েন চলছিল। তারই জের ধরে ফজল শিমুলকে খুন করেছে বলে পরিবার দাবি করছে।

এদিকে জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আফছার হোসেন (১৭) নামের এক যুবলীগকর্মী নিহত হয়েছে। শনিবার রাত ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে উপজেলার কাদিপুরে একটি ওরসের অনুষ্ঠান ছিল। এ অনুষ্ঠানে কয়েকজনের সঙ্গে নিহত আফছার হোসেনের কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে দুর্বৃত্তরা আফছার হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাত্ক্ষণিক উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি এ কে এম ফজলুল হক শিবলী ঘটনার সততা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।



মন্তব্য