kalerkantho


সেই বাবলীর লাশ উদ্ধার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টাঙ্গাইলের মির্জাপুর সদরে মেহিয়া আক্তার বাবলী নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত বুধবার রাতে ভাড়া বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। বাবলী এবার ভারতেশ্বরী হোমস থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পেটে থাকার সময়ই মেয়ে হবে জানতে পেরে স্ত্রী পারুল বেগমকে গর্ভপাতের জন্য চাপ দিতেন বাবলীর বাবা বখতিয়ার হোসেন। তাতে তার মা রাজি হননি। জন্মের পর ছয় মাস বয়সে মেয়েকে এসিড দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালান। তাতে বাবলীর একটি কান নষ্ট হয়ে যায়। তা ছাড়া গলা, জিহ্বা ও মুখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তখন এ ঘটনায় মামলা হলে তার বাবা বখতিয়ার পলাতক থাকেন।

মির্জাপুর থানার ওসি মিজানুল হক জানান, বাবলী একসময় ভারতেশ্বরী হোমসের হোস্টেলে থাকত। শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে গত বছর তাকে হোস্টেল থেকে বের করে দেওয়া হয়। এরপর সে তার বান্ধবী আফিয়া আক্তার জয়া ও জয়ার মা ফাতেমা আক্তার সুমির সঙ্গে মির্জাপুর সদরে ভাড়া বাসায় থাকত। বাবলীর মা পারুল বেগম ঢাকার একটি পার্লারে কাজ করেন। বুধবার মায়ের সঙ্গে দেখা করে ওই দিনই মির্জাপুরে ফেরে বাবলী। পরে রাতে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে বান্ধবী জয়া, তার মা সুমিসহ হৃদয় নামের এক ছেলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় তার বান্ধবীর মাকে আটক করা হয়েছে।

 


মন্তব্য