kalerkantho


বগুড়ায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন’র সম্পাদক, প্রকাশক, বার্তা সম্পাদক ও একজন প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে বগুড়ায় দুটি মানহানির মামলা করা হয়েছে। দুটি মামলায় ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে মোট ৯ কোটি টাকা। গতকাল রবিবার দুপুরে বগুড়া জেলার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ আদালতে আলাদাভাবে মামলা দুটি করেন দুই আওয়ামী লীগ নেতা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বগুড়া শহরের চকসুত্রাপুর বাদুরতলার মৃত শাহ আলমের ছেলে মঞ্জুরুল আলম মোহন পাঁচ কোটি টাকার মানহানি মামলা করেছেন। তিনি বিবাদী হিসেবে ক্রমান্বয়ে পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ, পত্রিকার বার্তা সম্পাদক, সম্পাদক নঈম নিজাম ও প্রকাশক ময়নাল হোসেন চৌধুরীর নাম উল্লেখ করেছেন। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ২৮ জানুয়ারি বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সংখ্যায় ‘বগুড়ার ঘাটে ঘাটে ইয়াবা’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে তাঁকে বগুড়ার সব ইয়াবা মাদক কারবারির একক গডফাদার হিসেবে উল্লেখ করে সংবাদ পরিবেশন করা হয়। যা মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও মানহানিকর। তিনি বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন শেষে ১৯৯৬ সালে জেলা যুবলীগের সভাপতি হিসেবে টানা ২৬ বছর দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ঠিকাদারির পাশাপাশি পরিবহন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

একই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অন্য মামলাটি করেছেন বগুড়ার একই এলাকার বাসিন্দা, মৃত মুনসুর আলী আকন্দের ছেলে আব্দুল মান্নান। তিনি চার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন। তিনি বিবাদী হিসেবে ক্রমান্বয়ে সম্পাদক, বার্তা সম্পাদক, স্টাফ রিপোর্টার শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ ও প্রকাশকের নাম উল্লেখ করেছেন।

আব্দুল মান্নান তিনি নিজেকে আওয়ামী লীগের নেতা দাবি করে উল্লেখ করেছেন, তাঁর ঠিকাদারি ও পরিবহন ব্যবসা রয়েছে। কিন্তু তাঁর নামে মাদক কারবারের সঙ্গে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করায় তাঁর মানহানি হয়েছে। দুটি মামলাতেই বাদীপক্ষের আইনজীবী আফতাব উদ্দিন আহম্মেদ।



মন্তব্য