kalerkantho


ছাত্রলীগের সংঘর্ষে পাবনা মেডিক্যাল বন্ধ

আহত ৯, শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ

পাবনা প্রতিনিধি   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষের পর পাবনা মেডিক্যাল কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে যাদের পরীক্ষা রয়েছে, তারা তাদের প্রবেশপত্র দেখিয়ে হলে থাকতে পারবে।

গত বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে গতকাল শুক্রবার ভোর পর্যন্ত কয়েক দফা সংঘর্ষে অন্তত ৯ জন আহত হয়েছে। আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

পুলিশ ও কলেজ সূত্র জানায়, মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন ক্লাবের পরিচিতিসভার অনুষ্ঠান নিয়ে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহাফুজ নয়ন ও সাধারণ সম্পাদক অদ্বিতীয় দের গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত প্রায় দেড়টার দিকে দুই গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়াধাওয়ি, সংঘর্ষ শুরু হয়। গতকাল ভোর ৬টা পর্যন্ত কয়েক দফা সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু তোরাব মিম, সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক জুবায়ের মাহমুদ, সাবেক উপদপ্তর সম্পাদক এমরান হোসেন অর্ঘ্য, সাবেক উপপ্রচার সম্পাদক মশিউর রহমান, বঙ্গবন্ধু হল শাখার সাংগাঠনিক সম্পাদক এস এম হাসানুজ্জামান, বর্তমান কমিটির যুগ্ম সম্পাদক জয়দেব কুমার সুত্রধরসহ ৯ জন আহত হন।

পাবনা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. রিয়াজুল হক রেজা কালের কণ্ঠকে জানান, সংঘর্ষ চলাকালে কলেজের তিনটি ছাত্র হল ও একটি ছাত্রী হলে থাকা সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে একাডেমিক কাউন্সিল গতকাল সকালে জরুরি বৈঠকের মধ্যে দিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধের ঘোষণা দেয়। গতকাল দুপুর ২টার মধ্যে ছাত্রদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে যেসব শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে, তাদের পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রদর্শন করে হলে থাকার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস কালের কণ্ঠকে জানান, ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গতকাল দুপুর ২টায় হলের সাধারণ শিক্ষার্থীদের হল ছেড়ে যেতে দেখা যায়। এখন পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় কোনো পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি বলে সদর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন।



মন্তব্য