kalerkantho

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গত বছর ১৮ ডিসেম্বর কালের কণ্ঠে দ্বিতীয় সংস্করণে শেষের পাতায় ‘বিসিআইসিতে অনিয়ম অভিজ্ঞতার সনদ জালিয়াতির অভিযোগ তদন্তে গড়িমসি’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) পরিচালক (পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন) মো. লুত্ফর রহমান প্রতিবাদলিপিতে বলেন, ‘চাকরিতে নিয়োগের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির সকল শর্তাবলি অনুসরণ কর সংস্থা কর্তৃপক্ষ আমাকে বিসিআইসিতে উপপ্রধান হিসাবরক্ষক পদে নিয়োগ প্রদান করে। সে ক্ষেত্রে আমার সনদপত্র যাচাই-বাছাই করাসহ নিয়োগের যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করে নিয়োগপত্র প্রদান করা হয়। আমি বিসিআইসিতে যোগদানের পূর্বেই কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস (সিএমএ) কোয়ালিফাই করি। চাকরির বিজ্ঞপ্তি ও সংস্থার প্রবিধানমালা অনুযায়ী কোনো প্রার্থী সিএমএ কোয়ালিফাই হলে সংশ্লিষ্ট পদের কোনো অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয় না (প্রবিধানমালার কপি সংযুক্ত)। যোগদানের পর বিসিআইসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও শিল্প মন্ত্রণালয় দ্বারা গঠিত কমিটির মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে আমি পদোন্নতি পেয়েছি। এমনকি সর্বশেষ শিল্প মন্ত্রণালয় এবং জনপ্রশাসনের সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড (এসএসবি) কর্তৃক আমার সকল প্রকার সনদপত্র যাচাই-বাছাই করার পর আমাকে সংস্থায় স্থায়ীভাবে পরিচালক পদে পদায়ন করে। এ ক্ষেত্রে দক্ষতা ছাড়া সনদপত্র জালিয়াতি বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে নিয়োগ বা পদোন্নতি পাওয়ার সুযোগ নেই।’

মন্তব্য