kalerkantho


ডিটিসিএ’র সিদ্ধান্ত

শুক্র-শনি ছাড়া রাজধানীতে সভা শোভাযাত্রা নয়

বিডিনিউজ   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রাজধানীতে যানজট ও জনদুর্ভোগ কমাতে সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া সড়কে সব ধরনের সভা-শোভাযাত্রা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ)। গতকাল রবিবার নগরভবনে ডিটিসিএর পরিচালনা পরিষদের সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা শেষে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, মোটরসাইকেলে দুইজনের বেশি ওঠা যাবে না এবং শুক্র-শনিবার ছাড়া ঢাকার রাস্তায় কোনো সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে। কেউ তা অমান্য করলে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্ত্রী কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং সাংসদ নুরুল মজিদ হুমায়ুন উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার, সড়ক বিভাগ ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধি, ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনারসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা সভায় অংশ নেন।

ডিটিসিএর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ আহম্মেদ রাজধানীর যানজট নিরসনে বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতি তুলে ধরেন। এ সময় ডিটিসিএকে ‘বড় বড় স্বপ্নের’ প্রকল্প না নিয়ে স্বল্পমেয়াদি প্রকল্প নিয়ে তা বাস্তবায়নের পরামর্শ দেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘ডিটিসিএর কাজ কি শুধু মেট্রোরেল, আর কোনো কাজ নেই? মেট্রোরেল আসবে সেটা আরও সময়সাপেক্ষ। সামনে নির্বাচন, বাস্তবভিত্তিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এই মুহূর্তে কী কী করলে ঢাকা শহরে যানজট সহনীয় মাত্রায় রাখা যাবে, সে কাজগুলো আমরা কিছু কিছু করে করতে পারি।’

সড়ক বন্ধ করে সভা-সমাবেশ করায় রাজধানীতে যানজট তৈরি হচ্ছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জনদুর্ভোগ কমাতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এখন ছুটির দিনে অনুষ্ঠান করে। শুধু আওয়ামী লীগ নয়, সব দলকে এটা মানাতে হবে। এ কাজটা অন্তত করেন। কোনো মন্ত্রণালয়ের হলেও তা নির্ধারিত সময়ে না করে শুক্র-শনিবার করেন।’



মন্তব্য