kalerkantho


রূপা ধর্ষণ ও হত্যা মামলা

সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু পরবর্তী তারিখ আগামী রবিবার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রী রূপাকে গণধর্ষণের পর হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। গতকাল বুধবার টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক আবুল মনসুর মিয়ার আদালতে এই সাক্ষ্যগ্রহণ হয়। গতকাল শুধু বাদীর সাক্ষ্যগ্রহণ হয়েছে। আগামী রবিবার সাক্ষ্যগ্রহণের পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

টাঙ্গাইল আদালত পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মামলার বাদী এসআই আমিনুল ইসলাম গতকাল আদালতে সাক্ষ্য দেন। আদালতের বিচারক প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আবুল মনসুর মিয়া সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

গতকাল রাষ্ট্রপক্ষ মামলার বাদী আমিনুল ইসলামসহ ৯ জন সাক্ষীর হাজিরা আদালতে দাখিল করেন। সাক্ষ্যগ্রহণের সময় মামলার পাঁচ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিল। আসামিরা হলো ছোঁয়া পরিবহনের চালক হাবিব, সুপারভাইজার সফর, চালকের সহকারী জাহাঙ্গীর, শামীম ও আকরাম।

গত বছর ২৯ নভেম্বর টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক রবিউল হাসান পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন। একই সঙ্গে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ৩ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। গত বছর ১৫ অক্টোবর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মধুপুরের অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক কাইয়ুম সিদ্দিকী খান টাঙ্গাইলের বিচারিক হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এতে পাঁচ শ্রমিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়। পরের দিন মামলাটি বিচারের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বদলি করা হয়।

গত বছরের ২৫ আগস্ট বগুড়া থেকে ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে রূপাকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনা ঘটে। ওই রাতেই মধুপুর উপজেলার পঁচিশ মাইল এলাকা থেকে তাঁর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।


মন্তব্য