kalerkantho


‘বোমার কারিগর’ মামুন গ্রেপ্তার

হোটেল ওলিওতে বিস্ফোরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রাজধানীর পান্থপথের হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে অবস্থান নিয়ে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে হামলার উদ্দেশ্যে বোমা প্রস্তুতকারী নব্য জেএমবির এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার নাম মামুন।

গত রবিবার সন্ধ্যায় ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট, পুলিশ হেডকোয়ার্টারের গোয়েন্দা তথ্য বিশ্লেষণে কাজ করা লফুল ইন্টারসেপশন সেল (এলআইসি) ও বগুড়া জেলা পুলিশ রাজধানীর উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরের হাউস বিল্ডিং এলাকা থেকে মামুনকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ বলছে, মামুনের তৈরি করা বোমা জাতীয় শোকযাত্রায় বিস্ফোরণ ঘটাতে হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে অবস্থান নেয় জঙ্গি সাইফুল। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী খবর পেয়ে গত বছরের ১৫ আগস্ট কর্মসূচি চলার মধ্যেই ওই হোটেলে অভিযান চালায়। ওই সময় আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় সাইফুল এবং সে নিহত হয়।

পুলিশ আরো বলেছে, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বোমা প্রস্তুতকারী মামুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে হামলাচেষ্টার পরিকল্পনাকারীদের অন্যতম।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এক কর্মকর্তা বলেন, মামুন নব্য জেএমবির (জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ) শীর্ষস্থানীয় নেতা ও শুরা সদস্য। সে জঙ্গি সংগঠনের জন্য অর্থ সংগ্রহ, বিস্ফোরক তৈরি, প্রশিক্ষণ দেওয়া ও নাশকতামূলক হামলা পরিকল্পনার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিল। ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, গত বছর ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান চলার মধ্যেই পাশে পান্থপথে হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে অভিযান চালালে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গি সাইফুল। সেই বোমাটি মামুন তৈরি করেছে এবং হোটেলে আত্মঘাতী সাইফুলের কাছে বোমাটি নিজে গিয়েই দিয়ে আসে বলে জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করেছে। ঢাকায় আবারও বড় ধরনের নাশকতামূলক হামলার উদ্দেশ্যে মামুন উত্তরায় অবস্থান করছিল।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) আবদুল মান্নান বলেন, এই ঘটনায় গুলশান থেকে সম্প্রতি প্রকাশক তানভীরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাঁর কাছ থেকেও মামুনের ব্যাপারে বিশদ তথ্য পাওয়া গেছে। তা ছাড়া আকরাম নামের এক জঙ্গি পলাতক রয়েছে। তাকে ধরার চেষ্টা চলছে। তবে তার বাবা, মা ও বোনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এডিসি মান্নান আরো বলেন, মামুন নব্য জেএমবির শীর্ষ পর্যায়ের একজন নেতা। সে বোমা তৈরিতে খুবই দক্ষ। নৌবাহিনীর সাবেক সদস্য নব্য জেএমবির আরেক শীর্ষ নেতা মাহফুজের কাছ থেকে বোমা তৈরির প্রশিক্ষণ নিয়েছে সে। এরপর থেকে সে নিজেই রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জঙ্গি আস্তানায় বোমা তৈরি করত। জিজ্ঞাসাবাদে মামুন জানিয়েছে, সে আবীর ওরফে মুয়াজ নামের এক জঙ্গির মাধ্যমে নব্য জেএমবিতে যোগ দেয়।



মন্তব্য