kalerkantho


চট্টগ্রামে এরশাদ

নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘জাতীয় পার্টি নির্বাচনের একটা ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছে। সবাই চাচ্ছে আমাদের। আমরা কোথায় যাব, কিভাবে নির্বাচন করব সেটা ডিপেন্ড করবে আমাদের ওপর। কর্মীদের ওপর ও নেতাদের ওপর। আলোচনার মাধ্যমে আমরা সিদ্ধান্ত নেব, আগামী নির্বাচন আমরা কিভাবে করব।’

গতকাল বুধবার বিকেলে নগরের র‌্যাডিসন ব্লু বে-ভিউতে সংবাদকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। চট্টগ্রামে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এক দিনের সফরে গতকাল এসেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান।

এরশাদ বলেন, ‘আমার মনে হয়, আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অনেক ভালো করবে এবং জাতীয় জীবনে একটা মূল্যবান উপহার দেব।’ অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমার কথা হলো, আমরা একা নির্বাচন করার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করছি। আপাতত একটা জোটে আমরা আছি। আগামীতে কী হবে, কিভাবে নির্বাচন হবে, সে সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করা আমার পক্ষে সম্ভব নয় এখন।’

রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে ‘সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ’ দাবি করে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, ‘আমি রংপুরে নির্বাচন করে এলাম। নির্বাচনের আগে বলেছিলাম নির্বাচন কমিশনের এটা পরীক্ষা। একটা সুষ্ঠু নির্বাচন তারা করতে পারে কি না তার প্রথম পরীক্ষা। সে পরীক্ষায় নির্বাচন কমিশন উত্তীর্ণ হয়েছে। রংপুর নির্বাচন আদর্শ নির্বাচন হয়েছে। এখানে সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছে। আমার মনে হয়, প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে একটা সুন্দর নির্বাচন করতে পেরেছে।’

রংপুরে নির্বাচনের সাফল্য জাতীয় পার্টি জাতীয় নির্বাচনে ধরে রাখতে পারবে কি না জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ বিষয়ে কথা বলা আমার উচিত হবে না। কেননা আওয়ামী লীগ আমাদের চেয়ে অনেক শক্তিশালী দল। আমরা এখন সংগঠিত হচ্ছি। আমাদের ৩০০ আসনে প্রার্থী আছে। কতজন প্রার্থী জয়ী হতে পারবে সে সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত নই। তবে কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ সৃষ্টি হয়েছে। যদি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় আমার মনে হয়, নির্বাচনে আমরা ভালো করব।’

এ সময় এরশাদের পাশে ছিলেন দলীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু ও মাহজাবিন মোরশেদ, ভাইস চেয়ারম্যান মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহিম, প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠ প্রমুখ।



মন্তব্য