kalerkantho


রোহিঙ্গা গণহত্যার হোতার ওপর নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তে নাখোশ মিয়ানমার

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা গণহত্যায় নেতৃত্ব দেওয়া মেজর জেনারেল মং মং সোর ওপর যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় নাখোশ হয়েছে মিয়ানমার। দেশটির সরকারের একজন মুখপাত্র য তে যুক্তরাষ্ট্রের ওই সিদ্ধান্তকে দুঃখজনক বলে অভিহিত করেছেন। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তিনি বলেন, ‘আমরা অব্যাহতভাবে বলে আসছি, যে অভিযোগের ভিত্তিতে ওই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে তা অবাস্তব এবং এর কোনো প্রমাণ নেই। এমন সিদ্ধান্তে আমরা দুঃখ বোধ করছি।’

মুখপাত্র য তের দাবি, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা গল্প বানাচ্ছে। মিয়ানমারের সেনাদের বিরুদ্ধে অপরাধের জোরালো ও বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ থাকলে সরকার অবশ্যই ব্যবস্থা নিত। তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘসহ বিভিন্ন দেশের সরকার ও মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোতে আমরা বলেছি মানবাধিকার সুরক্ষা ও উৎসাহিত করতে বর্তমান সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ।’

উল্লেখ্য, গত ২২ ডিসেম্বর ট্রাম্প প্রশাসন মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পশ্চিমাঞ্চলীয় কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মেজর জেনারেল মং মং সোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র ও অর্থ দপ্তর বলেছে, মেজর জেনারেল মং মং সোর নেতৃত্বেই মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধনযজ্ঞ চালানো হয়েছে। তিনি যে হত্যাযজ্ঞ, যৌন সহিংসতা ও অগ্নিসংযোগের সঙ্গে জড়িত সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণও যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন গত মাসে নেপিডো সফরের প্রাক্কালে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ মেজর জেনারেল মং মং সোকে দেশটির সেনাবাহিনীর পশ্চিমাঞ্চলীয় কমান্ডের নেতৃত্ব থেকে প্রত্যাহার করে। তাঁকে নতুন কোনো দায়িত্বও দেওয়া হয়নি। মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ এর কোনো কারণ সাংবাদিকদের জানায়নি। যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়নকে ‘জাতিগত নিধনযজ্ঞ’ হিসেবে অভিহিত করেছে। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গত ২৫ আগস্ট নতুন করে শুরু হওয়া নিধনযজ্ঞে কতজন রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া যায় না। জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার যায়ীদ রা’দ আল হুসেইন মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে গণহত্যার জোরালো আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। মিয়ানমার বিদেশিদের রাখাইন রাজ্যে যেতে দিচ্ছে না, এমনকি জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ দূতের সফরও আটকে দিয়েছে।



মন্তব্য