kalerkantho


কুখ্যাত চৌধুরী মঈনুদ্দীনের ব্রিটেনে বিলাসী জীবন

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ইন্টারপোলের রেড অ্যালার্টে নাম

জুয়েল রাজ, লন্ডন থেকে   

২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ইন্টারপোলের রেড অ্যালার্ট তালিকায় থেকেও লন্ডনে বিলাসী জীবন যাপন করছেন যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কুখ্যাত রাজাকার চৌধুরী মঈনুদ্দীন। একাত্তর সালে বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবী হত্যার অন্যতম খলনায়ক এই ব্যক্তি। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর পালিয়ে লন্ডন চলে এসেছিলেন। বর্তমানে উত্তর লন্ডনের মিলিয়ন পাউন্ড দামের বাড়িতে বসবাস করছেন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এই আসামি। ইন্টারপোল তাঁর নামে ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করে অনেক আগেই, যদিও তাঁকে খুঁজে পায় না পুলিশ! এ নিয়ে গতকাল বুধবার ব্রিটেনের সান পত্রিকা প্রকাশ করেছে বিশেষ সচিত্র প্রতিবেদন। ব্রিটিশ নাগরিকত্ব লাভকারী মঈনুদ্দীনের স্ত্রীর নাম ফরিদা (৫৭) এবং চার সন্তানের জনক।

সানের প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রিটেনের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের (এনএইচএস) সাবেক পরিচালক চৌধুরী মঈনুদ্দীনকে ১৯৭১ সালের একটি জঘন্য মিলিশিয়া বাহিনীর নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়। মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য বাংলাদেশে ২০১৩ সালে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত হন তিনি। প্রতিবেদনে বলা হয়, চৌধুরী মঈনুদ্দীনকে (৬৯) ১৯৭১ সালের স্বাধীনতাযুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধে তাঁর অনুপস্থিতিতে দোষী সাব্যস্ত করা হয়।



মন্তব্য