kalerkantho


পৌর কর্মচারীদের মহাসমাবেশ

৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন দাবি

গতকাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা, পেনশনসহ অন্যান্য সুবিধা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে প্রদানের দাবিতে মহাসমাবেশ করে বাংলাদেশ পৌর সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা, পেনশন ও অন্যান্য সুযোগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন সারা দেশের পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। গতকাল বুধবার ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশ করে তাঁরা এই দাবি জানান।

বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আব্দুল আলীম মোল্লার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় এই মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়ন পরিষদের কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে ৭৫ শতাংশ বেতন দেওয়া হয়—উল্লেখ করে আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে পৌরসভার কর্মচারীদেরও বেতন-ভাতা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে দেওয়ার দাবি জানানো হয় মহাসমাবেশ থেকে।

এ ছাড়া দাবি আদায়ে আগামী ১৫ ও ১৬ জানুয়ারি দেশের ৩২৭টি পৌরসভায় একযোগে দুই দিনের পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন, ২৯ জানুয়ারি কাফনের কাপড় পরে ৬৪ জেলায় জেলা প্রশাসকদের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। এর মধ্যে দাবি না মানলে ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আমরণ অনশন শুরু করার ঘোষণা দেন নেতারা। সমাবেশ শেষে সভাপতির নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিতে যায়। সভাপতির বক্তব্যে মো. আব্দুল আলীম মোল্লা বলেন,  পৌরসভার নিজস্ব পর্যাপ্ত আয় না থাকায় দেশের ৭৬ শতাংশ পৌরসভায় দুই থেকে ৫৮ মাস পর্যন্ত বেতন বকেয়া রয়েছে। তা ছাড়া অবসরকালীন ভাতা বকেয়া রয়েছে শতভাগ পৌরসভায়। কোনো কোনো পৌরসভায় প্রয়োজনীয় অর্থের অভাবে জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ এখনো বাস্তবায়ন করতে পারেনি। এমন অবস্থায় প্রায় সাড়ে ১২ হাজার স্থায়ী ও ২০ হাজারের মতো অস্থায়ী কর্মকর্তা ও কর্মচারী মানবেতন জীবনযাপন করছে। তিনি  পৌরসভাগুলোতে বরাদ্দের পরিমাণ বাড়ানোর দাবি জানান।


মন্তব্য