kalerkantho


সাংবাদিক মোনাজাত উদ্দিনের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর   

২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



সাংবাদিক মোনাজাত উদ্দিনের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী কাল

চারণ সাংবাদিক মোনাজাতউদ্দিনের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল। ১৯৯৫ সালের ২৯ ডিসেম্বর ফুলছড়ি উপজেলার যমুনা নদী পারাপারের সময় ফেরী থেকে পড়ে তাঁর মৃত্যু হয়। এরপর রংপুর মুন্সিপাড়া কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। তৎকালীন সরকার এ মৃত্যুরহস্য উদ্ঘাটনে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল। কিন্তু সেই কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন আর আলোর মুখ দেখেনি। মোনাজাত উদ্দিনের সাংবাদিকতা অদ্যাবধি স্মরণীয় ও অনুসরণীয় গণমাধ্যমে।

মোনাজাত উদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রংপুরের গঙ্গাচড়া প্রেস ক্লাব ও মরহুম আব্দুল মজিদ-মোনাজাত স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে কোরআনখানি, মিলাদ মাহফিল, কাঙালিভোজ ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়েছে। এ ছাড়া রংপুর প্রেস ক্লাব দিনটি পালনে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনাসভার আয়োজন করেছে।

মফস্বল সাংবাদিকতায় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকা মোনাজাত উদ্দিনের জন্ম ১৯৪৫ সালের ২৭ জুন রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া গ্রামে। বগুড়ার সাপ্তাহিক বুলেটিন পত্রিকার মাধ্যমে সাংবাদিকতায় আসেন মোনাজাত উদ্দিন। ১৯৬২ সালে দৈনিক আওয়াজ পত্রিকার স্থানীয় সংবাদদাতা হিসেবে এবং ১৯৬৬ সালে দৈনিক আজাদে উত্তরাঞ্চলীয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন।

সাংবাদিকতার স্বীকৃতি হিসেবে ১৯৮৭ সালে ফিলিপস পুরস্কার পান মোনাজাত উদ্দিন। ১৯৯৭ সালে পান একুশে পদক (মরণোত্তর)। এ ছাড়া প্রায় অর্ধডজন পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।


মন্তব্য