kalerkantho


সিলেটে নির্মাণাধীন শৌচাগারে মাদরাসা শিক্ষার্থীদের হামলা

সিলেট অফিস   

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



নগরীর আধুনিকায়নে সিলেটে নির্মিতব্য ওয়াশ ব্লকে হামলা চালিয়েছে মাদরাসা শিক্ষার্থীরা। গতকাল রবিবার দুপুরে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা ভেঙে ফেলেছে সীমানাপ্রাচীর। ওয়াটার এইডের সহযোগিতায় সেখানে আধুনিক গোসলখানা ও গণশৌচাগার নির্মাণের কাজ চলছিল।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সিলেট নগরীতে পর্যটক ও পথচারীদের সুবিধার্থে আধুনিক ওয়াশ ব্লক নির্মাণের উদ্যোগ নেয় সিটি করপোরেশন। নারী ও পুরুষের জন্য আলাদা ব্যবস্থা রেখে প্রকল্পটি তৈরি করা হয়েছে। এটি বাস্তবায়নে করপোরেশন কিছু জায়গা বরাদ্দ নিয়েছে সরকারি আলিয়া মাদরাসা ও সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে। জায়গা চিহ্নিত করে সীমানাপ্রাচীর তৈরি করলে বিরোধিতা শুরু করে মাদরাসার শিক্ষার্থীরা। এরই ধারাবাহিকতায় একদল শিক্ষার্থী গতকাল দুপুর ১টার দিকে মিছিল নিয়ে হামলা ও ভাঙচুর চালায় প্রকল্প এলাকায়। এর আগে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিলের পাশাপাশি বেশ কিছুক্ষণ চৌহাট্টা-আম্বরখানা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে তারা মাদরাসার অধ্যক্ষ বরাবর স্মারক লিপি দেয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, দ্বিনি শিক্ষার ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানের জায়গা দখল করে শৌচাগার করা হচ্ছে, যা একেবারেই অনুচিত।

সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘মাদরাসা কর্তৃপক্ষের নির্ধারণ করে দেওয়া স্থানেই ওয়াশ ব্লক নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। তার পরও বিরোধিতা রহস্যজনক। ব্যস্ততম এলাকায় ওয়াশ ব্লক নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের। নগরবাসীর স্বার্থেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কারা ভাঙচুর করেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি গৌসুল হোসেন বলেন, ‘আলিয়া মাদরাসার শিক্ষার্থীরা ওয়াশ ব্লক নির্মাণের বিরোধিতা করে সীমানাপ্রাচীর ভেঙে ফেলেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।’ এদিকে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যেই বিকেল থেকে সিটি করপোরেশন ফের নির্মাণকাজ শুরু করেছে বলে জানা গেছে।



মন্তব্য