kalerkantho


হঠাৎ ওজন কমা ভালো নয়

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



হঠাৎ ওজন কমা ভালো নয়

দেহের ওজন হঠাৎ করে কমতে থাকলে তা কোনোভাবেই হালকা করে দেখার উপায় নেই। কারণ হঠাৎ ওজন কমে যাওয়া হতে পারে বড় কোনো রোগের লক্ষণ

কখন বিপজ্জনক : দেহের ওজন যদি বিনা কারণে ছয় মাসের মধ্যে ৫ শতাংশ বা তার চেয়ে বেশি পরিমাণে কমে যায় তাহলে বিষয়টি সম্পর্কে সতর্ক হয়ে যান। আপনার স্বাভাবিক খাবার ও জীবন যাপনে কোনো সমস্যা হয়েছে কি না, তা লক্ষ করুন। কোনো কারণ না থাকলে ওজন কমে যাওয়া খুবই উদ্বেগের বিষয়।

থাইরয়েড : থাইরয়েড গ্রন্থির কোনো সমস্যার কারণে দেহের ওজন হঠাৎ কমতে পারে। হাইপারথাইরয়েডিজম নামে সে সমস্যায় তেমন কোনো বাহ্যিক পরিবর্তন দেখা যায় না। তবে ক্ষুধা বেশি লাগা, হৃত্স্পন্দন বাড়া ও গরম অনুভূতি হওয়ার কথা বলেন

অনেক রোগী। এ সমস্যায় দেহের ওজনও বেশ কমে যায়।

পেটের সমস্যা : সেলিয়েক নামের একটি অটোইমিউন সমস্যার কারণে দেহের ওজন কমতে পারে। এ সমস্যায় কারো কারো ডায়রিয়া হতে পারে। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কোনো লক্ষণ প্রকাশ না পেলেও দেহের ওজন কমে যায়।

ডায়াবেটিস : বর্তমানে ডায়াবেটিস রোগ যেন মহামারি আকার ধারণ করেছে। আর ডায়াবেটিসের কারণে দেহের ওজন হঠাৎ কমে যেতে পারে। দেহের ওজন কমে যাওয়া ছাড়াও পানির পিপাসা ও অতিরিক্ত মূত্রত্যাগের ঘটনা ঘটতে পারে।

বিষণ্নতা : মানসিক সমস্যার কারণেও দেহের ওজন কমে যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সমস্যা হলো বিষণ্নতা।

ক্যান্সার : দেহের বহু ধরনের ক্যান্সারেই হঠাৎ ওজন কমে যেতে পারে। পেটের কোনো অংশের ক্যান্সার, টিউমার ও আলসারের কারণেও ওজন কমে যেতে পারে।

রিউম্যাটয়েড আর্থাইটিস : রিউম্যাটয়েড আর্থাইটিস রোগে মানুষের রুচি নষ্ট হয় এবং আক্রান্তরা খাওয়াদাওয়া কমিয়ে দেয়। ফলে ওজনও কমে যায়।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব


মন্তব্য