kalerkantho


কালের কণ্ঠ’র প্রতিবেদনের জের

আইনজীবীকে সাজা দেওয়ায় বীরগঞ্জের সেই এসি ল্যান্ডকে হাইকোর্টে তলব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



নিজ কক্ষে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আইনজীবীকে সাজা দেওয়ার ঘটনায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সাবেক সহকারী কমিশনার (এসি ল্যান্ড) বিরোদা রানী রায়কে তলব করেছেন হাইকোর্ট। ঘটনার প্রেক্ষাপটে  বীরগঞ্জ থেকে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গমারীতে বদলি করা এই এসি ল্যান্ডকে ২৭ ডিসেম্বর হাইকোর্টে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাঁকে আদালতে হাজির হয়ে কোন কর্তৃত্বে ওই সাজা দিয়েছেন তার ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি মো. হাবিবুল গণি ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল রবিবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ দেন। আদালত অন্তর্বর্তীকালীন আদেশের পাশাপাশি রুল জারি করেন। রুলে আইনজীবীকে সাজা দেওয়া কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। ওই এসি ল্যান্ডকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ভুক্তভোগী দিনাজপুর বারের আইনজীবী নিরোদ বিহারী রায় এবং লইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম নামের একটি অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক ড. বদরুল হাসান কচিকে ওই দিন আদালতে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

দিনাজপুরের আইনজীবী নিরোদ বিহারী রায়কে সাজা দেওয়ার ঘটনায় দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার অনলাইনে ‘বসতে চাওয়ায় আইনজীবীকে সাজা এসি ল্যান্ডের’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন গতকাল আদালতের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের দুজন আইনজীবী অ্যাডভোকেট সৈয়দ মহিদুল কবির ও অ্যাডভোকেট কাজী হেলালউদ্দিন। এরপর আদালত এ বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেন।

গত ১২ ডিসেম্বর দিনাজপুরের বীরগঞ্জের এসি ল্যান্ড ছিলেন বিরোদা রানী রায়। ওই দিন তাঁর কক্ষে বসাকে কেন্দ্র করে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আইনজীবী নিরোদ বিহারী রায়কে ৫০০ টাকা জরিমানা করেন। অনাদায়ে এক দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।



মন্তব্য