kalerkantho


সংবাদ সম্মেলনে রিজভী

বিচারকদের শৃঙ্খলাবিধির গেজেট সংবিধানবিরোধী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, ‘অধস্তন আদালতের বিচারকদের যে শৃঙ্খলাবিধি গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়েছে, তা সংবিধানবিরোধী। এই বিধিমালায় বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বলে কিছু নেই। এটি সংবিধানের ২২ অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করেছে। ২২ অনুচ্ছেদে স্পষ্টভাবে লেখা আছে, বিচার বিভাগ হবে একটি স্বাধীন অঙ্গ এবং বিচার বিভাগ ও নির্বাহী বিভাগ সম্পূর্ণভাবে পৃথক্করণ করা হবে। এই শৃঙ্খলাবিধির মাধ্যমে প্রশাসন থেকে বিচার বিভাগের মৃত্যু ঘটল।’

গতকাল বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতা আবদুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, মীর শরাফত আলী সপু, এ বি এম মোশাররফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রিজভী বলেন, ‘জারি করা বিধিমালায় বলা হয়েছে, অধস্তন আদালতের বিচারকদের নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ রাষ্ট্রপতি। এতে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বিঘ্নিত হবে। এতে নিম্ন আদালতের বিচারকদের ওপর নির্বাহী বিভাগের নিরঙ্কুশ নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা হবে। সরকারের হুকুমেই নিম্ন আদালতের বিচারকদের চলতে হবে। চাকরি রক্ষার্থে নির্বাহী বিভাগের সব অন্যায় আবদার শুনতে ও পালন করতে হবে। সুবিচার-ন্যায়বিচার কালের গর্ভে হারিয়ে যাবে।’

প্রধানমন্ত্রীর পুত্র সজীব ওয়াজেদের বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ‘নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টা বলেছেন, তিনি মেশিন দিয়ে জরিপ চালিয়েছেন। আওয়ামী লীগ আরো বেশি ভোটে জিতবে। উনি যে মেশিনের কথা বলছেন, সেটি আওয়ামী মেশিন, বাকশালী মেশিন। যে মেশিনের জরিপে জনগণের প্রকৃত মনোভাব ফুটে ওঠে না, শুধু আওয়ামী মনোভাবই ফুটে ওঠে। তার এই বক্তব্য থেকে ২০১৪ সালের মতো এবারও আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে আরেকটা নীলনকশার নির্বাচনের লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।’



মন্তব্য