kalerkantho


ইংরেজি নববর্ষ বরণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বনানী গুলশানে রাত ৮টার পর বহিরাগতরা নিষিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ইংরেজি নববর্ষ বরণে থার্টিফার্স্টে রাত ৮টার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাজধানীর বনানী ও গুলশান এলাকায় বহিরাগতের প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে। এ ছাড়া লাইসেন্সধারীরাও সেদিন অস্ত্র বহন করতে পারবে না।

বড়দিন উদ্‌যাপন ও থার্টিফার্স্ট নাইটে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে গতকাল বুধবার এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, খ্রিস্টান সম্প্র্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব বড়দিন উপলক্ষে ঢাকা মহানগরীর ৭৫টি চার্চে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাঁচ হাজার সদস্য মোতায়েন থাকবে। পাশাপাশি প্রস্তুত রাখা হবে আনসার ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যদের।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘থার্টিফার্স্টে গুলশান-বনানী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকাতে রাত ৮টার পর বহিরাগতদের প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। সব বার বন্ধ থাকবে। লাইসেন্সধারী অস্ত্র বহনও নিষিদ্ধ থাকবে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো জানান, কূটনৈতিক জোন, হোটেলসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় ২৪-২৫ ডিসেম্বর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। বড় চার্চগুলোতে আর্চওয়ে ও সিসিটিভি ক্যামেরা থাকবে। ঢাকা মহানগর পুলিশ ও র‌্যাব আলাদাভাবে নিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করবে এবং ইভ টিজার ও নেশাখোরদের নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, ‘থার্টিফার্স্ট নাইটে খোলা জায়গায় নাচ-গান করা যাবে না। আর জরুরি প্রয়োজনে ৯৯৯ সেবা চালু থাকবে। আগে থার্টি ফার্স্টে যুবকরা অবাধ্যভাবে চলাফেরা করত। গত তিন বছর ধরে তা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে। এবারও এই নিয়ন্ত্রণ অব্যাহত থাকবে।’


মন্তব্য