kalerkantho


অফিসার্স ক্লাব চত্বরে তিন দিনের মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



পোশাক, ঘর-গৃহস্থালি ও সূক্ষ্ম হাতের কাজের পণ্য থেকে শুরু করে খাবারদাবার সবই আছে একই চত্বরে। সেই সঙ্গে আছে শীতের পিঠাপুলিও।

রাজধানীর অফিসার্স ক্লাব চত্বরে গতকাল বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া তিন দিনের মেলায় এসব ছাড়াও পাওয়া যাচ্ছে নানা পণ্য। ক্লাবের মহিলা শাখা এ মেলার আয়োজন করেছে। গতকাল এ মেলার উদ্বোধন করেন নারী ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

১৪০টি স্টল নিয়ে বসেছে এ মেলা। প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলবে মেলা। শীতের কথা মাথায় রেখে স্টলে স্টলে রয়েছে বাড়তি আয়োজন। শাড়ি, সেলোয়ার-কামিজের পাশাপাশি আছে বাহারি নকশা ও রংবেরঙের শীতের পোশাক।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শীতের ভাপা ও চিতই পিঠা টেনেছে মেলায় আসা সব বয়সী ক্রেতাদের। কাবাব, লুচি, গরম গরম জিলাপিও ছিল অন্যতম আকর্ষণ।

বিক্রি হচ্ছে মধুও।

ঘর-গৃহস্থালির পণ্যের মধ্যে বিছানার চাদর, সোফার কুশন ও কাভার বেশি বিক্রি হচ্ছে। বিছানার চাদর বিক্রি হচ্ছে এক হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকায়।

সেলাই ছাড়া থ্রিপিস (সেলোয়ার-কামিজ-ওড়না) বিক্রি হচ্ছে এক হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকা বা এর বেশি দামে। শাল ৫০০ থেকে পাঁচ হাজার টাকা, সোয়েটার ৫০০ থেকে দুই হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অনেক ক্রেতা মেলায় পণ্য পছন্দ হলে অর্ডার করেও যাচ্ছেন।

কালারফুল হোম ডেকোরের মালিক আফরোজা আক্তার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আাামি বাসায় পণ্য তৈরি করে বিক্রি করি। মেলা উপলক্ষে ছাড় দিয়ে বিক্রি করছি। অনেকে মেলায় পণ্য দেখে পছন্দ করে বেশি পরিমাণে কিনতে অর্ডার দিচ্ছে। ’

আফরোজা আক্তার জানান, এবারে তিনি অপ্রচলিত কিন্তু প্রয়েজনীয় পণ্য এনেছেন। যেমন পর্দা আটকানো, ফ্রিজের হাতল ধরার কাপড়। অনেক ক্রেতা এসব পণ্য পছন্দ করে কিনছে।

মেলা ঘুরে দেখা গেছে, পাটের তৈরি রকমারি ব্যাগ ও লাইট ক্রেতার নজর কেড়েছে। এ স্টলের সামনে ভিড় রয়েছে। মেলায় রকমারি রেশমি চুড়িসহ বিভিন্ন রকমের চুড়ি বিক্রি হচ্ছে।


মন্তব্য