kalerkantho


ক্লিনিকের টয়লেটে সেবিকার লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীর কলাবাগান গ্রিন রোডে প্রাইভেট ক্লিনিকের টয়লেট থেকে কামরুন নাহার অনিমা (৩০) নামের এক সেবিকার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ‘ধানমণ্ডি প্রাইভেট ক্লিনিকের’ তৃতীয় তলা থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এই মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে তদন্তের আগে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তবে পরিবারের অভিযোগ, অনিমাকে হত্যা করা হয়েছে। কেননা মরদেহের মুখমণ্ডল ও হাতে কামড়ের দাগ এবং এক হাতে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ লাগানো ছিল।

মৃতের চাচা সরোয়ার আলম বলেন, ‘অনিমা ওর স্বামী রবিনের সঙ্গে মোহাম্মদপুর এলাকায় থাকত। গ্রামের বাড়ি গাজীপুরের কালীগঞ্জে। এক মাস আগে সে ওই ক্লিনিকে যোগদান করে। গত রবিবার নাইট ডিউটি থাকায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে সে ক্লিনিকে যায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্বামীর সঙ্গে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ফোনে কথাও বলে সে। ’

ক্লিনিকের অন্য নার্সদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘অনিমা ভোর সাড়ে ৪টার দিকে টয়লেটে যায়।

ঘণ্টা দুয়েক পরও বের না হওয়ায় নার্সরা বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানায়। তারা টয়লেটের দরজা ভেঙে অচেতন অবস্থায় অনিমাকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে আমরা ক্লিনিকে ছুটে যাই। কিন্তু ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ আমাদের সঙ্গে কথা তো দূরের কথা, দেখাও করেনি। নার্সরাও তাদের নাম-পরিচয় বলতে রাজি হয়নি। পারিবারিকভাবে অনিমার কোনো ঝামেলা ছিল না। তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওসির পরামর্শ অনুযায়ী আমরা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি। ’

কলাবাগান থানার ওসি ইয়াসির আরাফাত বলেন, ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ বলছে এটা আত্মহত্যা। কিন্তু ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। ক্লিনিকের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, অনিমা টয়লেটে যাচ্ছেন। এর বেশি কিছু নয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


মন্তব্য