kalerkantho


রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ৩ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় তিনজনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। তারা হলো সাগর হোসেন বিল্লাল (১৩), হারুন অর রশিদ রনি (৩৮) ও সাদ্দাম হোসেন (২৫)।

 

বিল্লালের বড় ভাই রাসেল জানান, তাঁদের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার বাঁশবাড়ী এলাকায়। যাত্রাবাড়ীর শেখপাড়ায় থাকেন। বিল্লাল আগে পাবলিক পরিবহনে হেলপারের কাজ করত। হঠাৎই সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। তাকে রুমে আটকে রাখা হতো। গতকাল সকালেও তাকে কক্ষের ভেতরে আটকে রাখা হয়। দুপুর ১২টার দিকে কক্ষের দরজা খুলে বিল্লালকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখা যায়। দ্রুত ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ক্যান্টনমেন্ট থানার এসআই জাকির হোসেন জানান, গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) সামনে ট্রাস্ট পরিবহনের একটি বাসে উঠতে গিয়ে হারুন-অর-রশিদ রনি পড়ে গেলে বাসটি তাঁকে চাপা দেয়।

এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। মৃতের ভাই শাহাদাত হোসেন জানান, রনি খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন কনভেনশন সেন্টারে ফ্লোর ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বাসা থেকে অফিসে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনাটি ঘটে। তাঁদের বাড়ি গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে। থাকতেন রাজধানীর ১৬১ নম্বর ভাসানটেকে।

রামপুরা থানার এসআই নজরুল ইসলাম জানান, গতকাল দুপুর সোয়া ১২টার দিকে পূর্ব রামপুরায় নির্মাণাধীন ভবনের চারতলায় ওয়েল্ডিং মেশিন দিয়ে কাজ করার সময় বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হন সাদ্দাম হোসেন। মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। সাদ্দাম ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার জগত্পুর গ্রামের ওবায়েদ আলীর ছেলে।


মন্তব্য