kalerkantho


জাতিসংঘের আনুমানিক হিসাব

রোহিঙ্গাদের জন্য ছয় মাসে লাগবে ২০ কোটি ডলার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নির্যাতনের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণ ও পুনর্বাসনে ছয় মাসে প্রায় ২০ কোটি ডলার প্রয়োজন হবে বলে মনে করছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের হিসাবে, গত চার সপ্তাহে চার লাখ ২২ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে, যাদের অনেকেই সীমান্ত পার হয়েছে গুলির বা পোড়া জখম নিয়ে।

বাংলাদেশ আগে থেকেই চার লাখের বেশি রোহিঙ্গার ভার বহন করে আসছে। নতুন করে বিপুলসংখ্যক এই রোহিঙ্গার জন্য ত্রাণ ও পুনর্বাসন চালাতে হিমশিম খাচ্ছে সরকার ও সাহায্য সংস্থাগুলো।

এ বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক রবার্ট ডি ওয়াটকিনস ঢাকায় বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, বাংলাদেশে ছয় মাসে এসব রোহিঙ্গার সহায়তায় ২০ কোটি ডলারের প্রয়োজন হবে। তবে তিনি বলেন, ‘এটি সুনির্দিষ্ট হিসাব নয়। তবে আমাদের কাছে যে তথ্য আছে তাতে আনুমানিক ওই পরিমাণ অর্থ লাগবে। ’

ওয়াটকিনস আরো বলেন, রাখাইনের পরিস্থিতি এখনো স্থিতিশীল নয়। কেননা নতুন নতুন রোহিঙ্গা আসছে। সুতরাং কত লোকের জন্য কত দিনের পরিকল্পনা করতে হবে সেটি বলা কঠিন। তিনি বলেন, ‘আমরা অবশ্য ১০ বছরের পরিকল্পনা করতে চাই না।

আমরা আশা করতে চাই যে তাদের ফেরত পাঠানোর ব্যাপারে সমঝোতার একটি উপায় বের হবে। ’ তা ছাড়া সাহায্যদাতারাও এক বছরের বেশি কোনো পরিকল্পনায় প্রস্তুত নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

গত ২৪ আগস্ট রাতে রাখাইন রাজ্যে একসঙ্গে ৩০টি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনা ক্যাম্পে হামলার কথা উল্লেখ করে পরদিন থেকে অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।


মন্তব্য