kalerkantho


কুড়িগ্রামে ত্রাণ বিতরণে রিজভী

আওয়ামী লীগের দুর্যোগ মোকাবেলায় কোনো প্রস্তুতি নেই

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

২২ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, দেশে খাদ্যঘাটতি রয়েছে। আওয়ামী লীগ সব সময় মিথ্যা কথা বলে। জনগণের দুর্ভোগ মোকাবেলায় তাদের কোনো প্রস্তুতি নেই। বরং দুঃশাসনকে দীর্ঘায়িত করার ষড়যন্ত্রে তারা এগিয়ে আছে। গতকাল সোমবার কুড়িগ্রামে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

রুহুল কবীর রিজভী বলেন, ‘সরকার বলে আসছে দেশে খাদ্যঘাটতি নেই; কিন্তু অর্থমন্ত্রী বলছেন দেশে খাদ্যঘাটতি চলছে। সুতরাং তাদের সরকার যারা পরিচালনা করছে, তাদের কথার যে অসংগতি সেই অসংগতির মধ্যে প্রমাণিত হয়, এই উপদ্রুত মানুষের কাছে আসা এবং তাদের দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ দেওয়ার জন্য সরকারের যে ধরনের কর্মতত্পরতা দেখানোর দরকার সেটা আমরা কিছুই দেখি নাই। আমরা দেখছি তারা শুধু শহরের দু-একটি জায়গায় যাচ্ছে, নামছে আর ফটোসেশন ও ভূরিভোজ সেরে চলে যাচ্ছে। অথচ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে ত্রাণ কমিটি করা হয়েছে এবং সারা দেশে যেখানে যেখানে বন্যা হয়েছে সেখানে ছড়িয়ে পড়ছে।’ এই কর্মকাণ্ডগুলো দৃশ্যমান বলে জানান তিনি।

ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে রিজভী বলেন, “বর্তমান মাননীয় প্রধান বিচারপতি সিনহা সাহেব ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় দিয়েছেন, অবৈধ ঘোষণা করেছেন। এখানে তিনি দুঃশাসন, দুর্নীতির, গণতন্ত্রের ঘাটতি সেই কথা বলেছেন। আমাদের সংবিধানের মূল যে কথা ‘আমরা’ তার কোনো প্রতিফলন নাই বর্তমানে। আমরা দেখেছি যে ‘আমিত্ব’র প্রচণ্ড প্রভাব, সেই ‘আমিত্ব’র কথা অবজারভেশনে (রায়ের পর্যবেক্ষণে) আছে। আওয়ামী লীগের গায়ে জ্বালা ধরে। গায়ের জোরে এই রায়টিকে বাতিল করার জন্য অথবা প্রধান বিচারপতিকে চাপ দিয়ে তাদের ইচ্ছা পূরণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।”

কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির উদ্যোগে পৌর এলাকার ভেলাকোপর হানাগড় ও পাঁচগাছি ইউনিয়নে প্রায় এক হাজার ২০০ পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। চাল পাঁচ কেজি, আলু এক কেজি, ডাল-লবণ আধা কেজি করে ও দিয়াশলাই দেওয়া হয়।



মন্তব্য