kalerkantho


রাজশাহীতে প্রাথমিকের বৃত্তি জালিয়াতি

বরখাস্ত শিক্ষা কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২২ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



রাজশাহীতে প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষার ফল জালিয়াতি করে অবৈধভাবে ৪০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেওয়ার ঘটনায় বরখাস্তকৃত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কাশেমকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন।গতকাল সোমবার বিকেলে কমিশনের সহকারী পরিচালক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আমিনুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে নগরীর অভিজাত পদ্মা আবাসিক এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে কাশেমের বিরুদ্ধে প্রাথমিকের বৃত্তি জালিয়াতির অভিযোগে নগরীর রাজপাড়া থানায় একটি মামলা করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশনের রাজশাহী কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক তরুণ কান্তি ঘোষ বাদী হয়ে মামলাটি করেন। এ মামলায় মোট তিনজনকে আসামি করা হয়। তাঁদের অন্যতম আবুল কাশেম। অন্য দুজন হলেন তৎকালীন বোয়ালিয়া থানা শিক্ষা কর্মকর্তা রাখী চক্রবর্তী ও বোয়ালিয়া থানা শিক্ষা কার্যালয়ের কম্পিউটার অপারেটর সোনিয়া খাতুন। তাঁদের ধরতে অভিযান চালানো হবে বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আমিনুর রহমান।

রাখী চক্রবর্তী বর্তমানে গোদাগাড়ী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।



মন্তব্য