kalerkantho


ফুলগাজীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা

সালিসে জুতার মালা ও নাকে খত

ফেনী প্রতিনিধি   

১৮ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০



ফেনীর ফুলগাজী উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে এলাকার এক রাজমিস্ত্রি ধর্ষণের চেষ্টা চালান বলে অভিযোগ ওঠে। পরে সালিসে ওই রাজমিস্ত্রির গলায় জুতার মালা পরিয়ে এলাকায় ঘোরানোর পাশাপাশি নাকে খত দেওয়ানো হয়।

একাধিক সূত্র জানায়, ফুলগাজীর মুন্সীরহাট ইউনিয়নের কুতুবপুরের ওই ছাত্রী গত শনিবার বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় একই এলাকার রাজমিস্ত্রি দুই সন্তানের জনক সোহরাব হোসেন (৪০) তাকে পথে একা পেয়ে জোর করে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে সোহরাব পালিয়ে যান। পরে ছাত্রীর বাবা ঘটনাটি ওই দিন রাতে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আলী আজমের কাছে জানান। আলী আজম গত রবিবার সন্ধ্যায় এ বিষয়ে তাঁর বাড়িতে সালিস বৈঠক ডাকেন। বৈঠকে অভিযুক্ত সোহরাব, ইউপি সদস্য আলী আজম ছাড়াও তাঁর ভাতিজা সাইদুল হক, স্থানীয় একটি স্কুলের শিক্ষক কামাল উদ্দিন, উভয় পক্ষের আত্মীয়স্বজন ও এলাকার লোকজন উপস্থিত ছিল। সালিসের সিদ্ধান্ত মতে, সোহরাবকে গলায় জুতার মালা পরিয়ে ঘোরানো এবং নাকে খত দেয়ানো হয়।

এ ব্যাপারে ফুলগাজী থানার ওসি এস এম মোর্শেদ বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মন্তব্য