kalerkantho


সিলেটে অর্থমন্ত্রীর বাসার সামনে বিড়ি শ্রমিকদের মানববন্ধন

সিলেট অফিস   

২৪ মে, ২০১৭ ০০:০০



বিড়িশিল্পের ওপর থেকে ‘বৈষম্যমূলক’ শুল্কনীতি বাতিলের দাবিতে এবং বিড়িশিল্প নিয়ে অর্থমন্ত্রীর করা উক্তির প্রতিবাদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সিলেটের বাসার সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে বিড়ি শ্রমিকরা। পরে তারা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিও দেয়।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট নগরের ধোপাদীঘির পাড়ে অর্থমন্ত্রীর বাসভবন হাফিজ কমপ্লেক্সের প্রধান ফটকের সামনে বিড়ি শ্রমিক ও কর্মচারী ফেডারেশন সিলেট অঞ্চল নামের সংগঠন এই কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধনে সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আমিন উদ্দিন বলেন, বিড়ির ওপর যে হারে কর বাড়ানো হয় বা কথা বলা হয় সিগারেটের ক্ষেত্রে তা করা হয় না। তিনি বলেন, ১৫ থেকে ১৬ লাখ শ্রমিক বিড়ি তৈরির কাজের সঙ্গে যুক্ত। কর বৃদ্ধির ফলে তারা ন্যায্য মজুরি থেকে বঞ্চিত হবে। লোকসানে পড়ে এই শিল্প ধ্বংস হলে বেকার হয়ে পড়বে শ্রমিকরা। তাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত দেশব্যাপী নানা কর্মসূচি চলবে বলে তিনি এ সময় মন্তব্য করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা দুই বছরের মধ্যে বিড়িকে চিরতরে দেশ থেকে বিদায় করবেন বলে অর্থমন্ত্রীর করা মন্তব্যেরও প্রতিবাদ জানান।

মানববন্ধন শেষে বিড়িশিল্প ও শ্রমিকদের রক্ষায় বিড়ির ওপর থেকে প্রস্তাবিত বর্ধিত কর প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে তারা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ এপ্রিল জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ও এফবিসিসিআই আয়োজিত পরামর্শক কমিটির ৩৮তম সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী। এ সময় তিনি বলেন, ‘আগামী দুই বছরের মধ্যে বিড়িকে চিরতরে দেশ থেকে বিদায় করে দেব। তামাকজাত পণ্য জনস্বাস্থ্যের জন্য খুব ক্ষতিকর। বিশেষ করে বিড়ি মানবদেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।’



মন্তব্য