kalerkantho


স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর শুরু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:১২



স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর শুরু

রাজধানীর চকবাজারের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পেছনের ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহদের লাশগুলো স্বজনদের বুঝিয়ে দেয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গ থেকে পরিচয় নিশ্চিত করা লাশগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর শুরু হয়েছে। আজ বেলা দুইটার দিকে লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হয় বলে জানান ঢাকা মেডিক্যালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ। ইতোমধ্যে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের যেকোনো তথ্য সরবরাহের জন্য ঢাকা মেডিক্যালে একটি তথ্যকেন্দ্র স্থাপন করেছে ঢাকা জেলা প্রশাসন।।

এর আগে দুপুরে অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, এ পর্যন্ত মর্গে ৭৮টা লাশ পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে কিছু লাশের চেহারা দেখে শনাক্ত করা সম্ভব হবে। কিছু লাশ শনাক্ত করতে ফিঙ্গারপ্রিন্টের প্রয়োজন হবে। আর কিছু ডিএনএ প্রোফাইলিংয়ের মাধ্যমে শনাক্ত করতে হবে।

পরে তিনি জানান, শনাক্তকৃত মরদেহের সংখ্যা সুনির্দিষ্ট করে বলতে না পারলেও এদিন ৩০-৩৫টি মরদেহ হস্তান্তর করা সম্ভব হতে পারে। 

লাশ হস্তান্তর প্রক্রিয়াতে যেন কোনো বিশৃঙ্খলতা না দেখা যায় তার নজরদারিতে রয়েছে পুলিশ। চকবাজার থানার এসআই প্রদীপ বিশ্বাস জানান, সুষ্ঠুভাবে লাশ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশের সহায়তায় কাজটি করছে ঢাকা মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ।

তথ্যকেন্দ্রে থেকে জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার ইমরুল হাসান বলেন, মরদেহ সমাহিত করার জন্য ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হচ্ছে।

ডা. সোহেল মাহমুদ আরো জানান, যেসব লাশের চেহারা দেখে শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে তাদের ময়নাতদন্ত শেষ হলে আজই স্বজনদের হাতে তুলে দেয়া হবে। আর যাদের লাশ কয়লা হয়ে গেছে তাদের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এ জন্য কিছুটা সময় লাগতে পারে। তবে সবার পরিচয় বের করা হবে আশা করছি।

গতকাল দিবাগত রাতে রাজধানীর চকবাজারের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পেছনের ভবনে ভয়াবহ আগুন লাগে। এ ঘটনায় দগ্ধ ও আহত হয়েছেন অর্ধ শতাধিক। প্রায় ৫ ঘণ্টা চেষ্টার পর রাত ৩টার দিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে ফায়ার সার্ভিস।  



মন্তব্য