kalerkantho


মতবিনিময় ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক

৯৮ শতাংশ হাসপাতাল অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:০৭



৯৮ শতাংশ হাসপাতাল অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে

৯৮ শতাংশ হাসপাতাল অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আলী আহাম্মেদ খান। আজ বুধবার সকাল ১১টায় ‘হাসপাতালের অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নতি’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ‘ওয়াক আপ কল’ ছিল। অধিকাংশ হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড হলে হাসপাতালে রোগী ও স্বজনরা কিভাবে বেরুবেন তা জানেন না। অনেক হাসপাতালে স্টোরেজ সিস্টেম ঠিক নেই হাসপাতালে রোগী নির্গমন ব্যবস্থা একেবারে নাজুক। ফায়ার সার্ভিস প্রতিনিয়ত ঝুঁকি মনিটরিং ও সে অনুযায়ী করণীয় সুপারিশ করে আসছে।

ঢাকা মহানগরে যত্রতত্র অপরিকল্পিত হাসপাতাল নির্মাণ ও আবাসিক ভবনের হাসপাতাল পরিচালনার বিষয়ে আলী আহাম্মেদ খান বলেন, হাসপাতাল পরিচালনার জন্য বিশেষ স্থাপনা প্রয়োজন হয়। সেখানে অগ্নি নিরাপত্তার বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। দুর্বল হাউসকিপিং, কার পার্কিং, রান্নাঘর, বয়লার হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড ঝুঁকি বাড়ায়। নিয়মিত অগ্নি-দুর্ঘটনা বিষয়ে হাসপাতালে কর্মীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে নিয়মিত ফায়ার ফাইটিং মহড়া ও প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করুন। আগুন লাগলে প্যানিক হবে না। অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র চালানো শিখে রাখলে শুরুর ৩০ মিনিট আপনারা নিজেরেই অগ্নি-দুর্ঘটনা মোকাবিলা করতে পারবেন।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে অনুষ্ঠিত এ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সহকারী পরিচালক উত্তম বড়ুয়া, ফায়ার সার্ভিসর মহাপরিচালক (অপারেশন) শাকিল আহমেদ, জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মোসাদ্দেক হোসেন



মন্তব্য