kalerkantho


সংসদে বিল পাস

কৃষিপণ্যের কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টিতে এক বছরের জেল-জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫০



কৃষিপণ্যের কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টিতে এক বছরের জেল-জরিমানা

বাজারে কৃষিপণ্যের কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টির অপরাধে এক বছরের জেল ও এক লাখ জরিমানার বিধান রেখে কৃষি বিপণন বিল-২০১৮ সংসদে পাস হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিলটি পাসের আগে জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। গত ১০ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বিলটি উত্থাপনের পর অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

পাস হওয়া বিলে বলা হয়েছে, লাইসেন্স ছাড়া প্রজ্ঞাপিত বাজারে বিপণন, লাইসেন্স ছাড়া গুদাম ও হিমাগার পরিচালনা করলে এবং কৃষিপণ্যের রপ্তানি, আমদানি করলে অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। এ ছাড়া অতিরিক্ত চার্জ আদায়, কর্মচারীকে বাধা, কৃষিপণ্যের পাইকারি ও খুচরা বিক্রয় মূল্য প্রদর্শন না করলে, কৃষিপণ্যে ক্ষতিকারক রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করলে, ওজনে কম দিলে অপরাধ হিসেবে গণ্য বলেও বিলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিলে উক্ত অপরাধের জন্য এক বছরের জেল ও এক লাখ জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। একই অপরাধ পুনরায় করলে দ্বিগুণ দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। এই আইনের অধীনে অপরাধগুলোর জন্য মোবাইল কোর্ট দণ্ড দিতে পারবে বলে বিলে বলা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশ্য সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, কৃষকের উৎপাদিত কৃষিপণ্যের উপযুক্ত মূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করার পাশাপাশি সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার সম্প্রসারণ, কৃষি ব্যবসার উন্নয়ন, কৃষিপণ্য উৎপাদন ও বিপণন কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে গতিশীলতা আনতে এবং দেশের কৃষিজ অর্থনীতি শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে বিলটি আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৫৯, ১৯৬৪ ও ১৯৮৫ সালে বিভিন্ন সময় কৃষি বাজার ব্যবস্থাপনা, পণ্য ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে আইন করা হয়। এসব আইন প্রয়োজনীয় সংশোধন করে বিলটি আনা হয়েছে।



মন্তব্য