kalerkantho


বৃক্ষ সংরক্ষণ আইন বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৮ ১৭:২৩



বৃক্ষ সংরক্ষণ আইন বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন

রাজশাহী মহানগরীর জিরো পযেন্ট চত্বরে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বৃক্ষ সংরক্ষণ আইন ২০১৬ মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন ও ইউক্যালিপটাস, আকাশমনিসহ পরিবেশ বিধ্বংসী বৃক্ষ রোপন বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। আজ রবিবার সকাল ১১টায় বারসিক ও তরুণ সংগঠন ইয়্যুথ এ্যাকশন ফর সোসাল চেঞ্জ (ইয়্যাস), বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্র ও সেভ দ্যা ন্যাচার এর যৌথ আয়োজনে উক্ত মানববন্ধনে রাজশাহী তথা বরেন্দ্র অঞ্চলের তরুণসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ৬০ জন মানুষ অংশগ্রহণ করেন। 

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বৃক্ষ পরিবেশের বন্ধু। শুধু পরিবেশ নয়, বৃক্ষ মানুষসহ পৃথিবীর সকল প্রাণিকূলের বন্ধু হিসেবে  তাদের খাদ্য নিরাপত্তা এবং বাঁচার নিয়শ্চয়তা দিয়ে থাকে। কিন্তু স্থান  এবং অঞ্চল ভেদে সেই বৃক্ষও আবার পরিবেশবিধ্বংসী হতে পারে। প্রকৃতি অঞ্চলভেদে তার চাহিদানুযায়ী সেজেছে। বিভিন্ন অঞ্চল তাই আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্য বহন করে। 
আমাদের বাংলাদেশ তথা বরেন্দ্র অঞ্চলের আবহাওয়া পরিবেশও অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় আলাদা বৈশিষ্ট্যবহন করে। এখানে একসময় নানা জাতের বৃক্ষ লতার জন্ম হতো। কালের বির্তনে, জলবায়ু পরিবর্তন এবং নানা ভুল উন্নয়ন উদ্যোগের কারনে দেশীয় প্রজাতির অনেক বৃক্ষ লতাপতা আজ বিলীন হয়ে গেছে আবার অনেক জাত বিলুপ্তীর পথে। 

বক্তরা আরো বলেন যে, বরেন্দ্র অঞ্চলের খড়ি গাছ, তেল কাকড়া, লতাজাতীয় মহাকাল, হাই হামলা, দেবদারু, ছাতিম, রাখাল নাড়–, রাখাল খই, জৈগচুকো, তমাল, হিজল ইত্যাদি বিলুপ্তী বা প্রায় বিলুপ্তীর পথে। 

আবার দেখা যায় এই অঞ্চলে ভূল উন্নয়ন উদ্যোগের কারনে বিভিন্ন পরিবেশ বিধ্বংসী বৃক্ষরোপন ও সম্প্রসারে এই উপকারী বৃক্ষ লতার গাছগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে বরেন্দ্র অঞ্চলের স্থানীয় পরিবেশ এবং প্রাণপ্রকৃতির ব্যাপক ক্ষতিসাধন হচ্ছে। একই সাথে বরেন্দ্র অঞ্চলের শতবছরী বৃক্ষগুলো দিনে দিনে কেটে ফেলার কারনে কমে গেছে।  মানববন্ধনে বক্তরা বরেন্দ্র অঞ্চলে ইউক্লিপটাস, আকাশমনিসহ পরিবেশ বিধ্বংসী গাছ রোপন বন্ধসহ প্রাচীন এবং ঐতিহ্যবাহী শতবছরী বৃক্ষগুলো সরকারী উদ্যোগে সুরক্ষার দাবি জানান। একই সাথে মাঠ পর্যায়ে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বৃক্ষ সংরক্ষণ আইন ২০১৬ মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের দাবি জানান।

মানববন্ধনে তিন দাবিগুলো হলো : প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বৃক্ষ সংরক্ষণ আইন ২০১৬ মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন করতে হবে। আইনটি বাতিল কোনভাবেই করা যাবে না। বরেন্দ্র অঞ্চলের প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী  শতবছরী বৃক্ষগুলো সমীক্ষা করে সেগুলো সরকারের পক্ষ থেকে সংরক্ষণের কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। ইউক্যালিপটাস, আকাশমনিসহ পরিবেশ বিধ্বংসী বৃক্ষ রোপন বন্ধের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন  তরুণ সংগঠন বরেন্দ্র শিক্ষা সঙস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্র’র সভাপতি জাওয়াদ আহমেদ রাফি, ইয়্যুথ এ্যাকশন ফর সোসাল চেঞ্জ (ইয়্যাস) এর সভাপতি শামীউল আলীম শাওন। দাবি সমূহ নিয়ে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চলের সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেভ দা নেচার এর চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান সহ স্থানীয় সংগঠনের সদস্য বৃন্দ।



মন্তব্য