kalerkantho


সরদার এ রাজ্জাক পেলেন ডাউন সিনড্রোম দিবস অ্যাওয়ার্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ আগস্ট, ২০১৮ ২১:২৭



সরদার এ রাজ্জাক পেলেন ডাউন সিনড্রোম দিবস অ্যাওয়ার্ড

বাংলাদেশের কোনও ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে এই প্রথম বিশ্ব ডাউন সিনড্রোম দিবস অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে। ডাউন সিনড্রোম সোসাইটি অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সরদার এ রাজ্জাক এ সম্মাননা পেয়েছেন।

সম্প্রতি (২৭ জুলাই) স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোর হোটেল হিলটনে ১৩তম বিশ্ব ডাউন সিনড্রোম কংগ্রেসে  জমকালো এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাঁকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। বিশ্বের প্রায় ১০০টি দেশের প্রতিনিধির উপস্থিতিতে ডাউন সিনড্রোম ইন্টারন্যাশনাল, ইউকের পে সংগঠনের সভাপতি ভেনেসা ডস সান্তোস তাঁর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন। 

সরদার এ রাজ্জাক ২০১৪ সালের ২১ মার্চ বিশ্বে ৯ম এবং বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো 'বিশ্ব ডাউন সিনড্রোম দিবস' উদযাপনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। এর ধারাবাহিকতায় ডাউন সিনড্রোম শিশু ও তাদের অভিভাবকদের নিয়ে 'ডাউন সিনড্রোম প্যারেন্ট সাপোর্ট গ্রুপ বাংলাদেশ' নামে একটি প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলেন। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠা করেন ডাউন সিনড্রোম সোসাইটি অব বাংলাদেশ। এসব কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ যুক্ত হয়েছে বিশ্বের ডাউন সিনড্রোম কমিউনিটির সঙ্গে। এসব প্রচেষ্টাকে স্বীকৃতি জানিয়ে ডাউন সিনড্রোম ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ব ডাউন সিনড্রোম দিবস অ্যাওয়ার্ডে তাকে ভূষিত করল।

বিশ্বে প্রতি ৮০০ শিশুর মধ্যে একজন 'ডাউন সিনড্রোম' শিশু জন্মগ্রহণ করে থাকে। সে হিসেবে বাংলাদেশে দুই লাখ লোক ডাউন সিনড্রোমে আক্রান্ত। এসব ব্যক্তি সমাজে অবহেলিত। অথচ ডাউন সিনড্রোম কোনও রোগ নয়, বরং এটি শরীরের একটি জেনেটিক পার্থক্য (ভিন্নতার মাত্রা) এবং ক্রোমোজমের একটি বিশেষ অবস্থা। সঠিক যত্ন, পুষ্টিকর খাবার, স্পিচ ও ল্যাংগুয়েজ এবং ফিজিক্যাল থেরাপির মাধ্যমে ডাউন সিনড্রোম শিশু স্বাভাবিক শিশুর মতো পড়ালেখা করে স্বনির্ভর হতে পারে।



মন্তব্য