kalerkantho


সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ধর্মমন্ত্রী

দেশের বিভাগীয় পর্যায়ে সম্প্রীতি বৃদ্ধির লক্ষ্যে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জুন, ২০১৮ ১৬:৪৭



দেশের বিভাগীয় পর্যায়ে সম্প্রীতি বৃদ্ধির লক্ষ্যে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ চালু

ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বলেছেন, দেশের বিভাগীয় পর্যায়ে ধর্মীয় সম্প্রীতি বৃদ্ধির লক্ষ্যে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ চালু রয়েছে। দক্ষতা বৃদ্ধি ও মানবসম্পদ উন্নয়নের লক্ষ্যে হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের অধীনে বাস্তবায়নাধীন ধর্মীয় ও আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে পুরোহিত ও সেবাইতদের দক্ষতা বৃদ্ধিকরণ শীর্ষক প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের পুরোহিত ও সেবাইতদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। আজ মঙ্গলবার সংসদ অধিবেশনের প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ তথ্য জানান। 

জাসদের বেগম লুৎফা তাহেরের প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান, এ পর্যন্ত ২১ হাজার ২৯০ জন পুরোহিত ও সেবাইতদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মানব সম্পদ উন্নয়নের লক্ষ্যে বর্তমানে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম ও মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক দুটি প্রকল্প সারাদেশে চলমান আছে। 

সরকারী দলের আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইনের প্রশ্নের জবাবে অধ্যক্ষ মতিউর রহমান জানান, প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপনের জন্য বৈদেশিক অর্থায়নে বাস্তবায়নের জন্য প্রথমে এ সংক্রান্ত প্রকল্পের অনুমোদন করা হয়। পরে এই প্রকল্পটি সংশোধিত আকারে জিওবির অর্থায়নে বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। চার বছর মেয়াদী এই প্রকল্পটি (এপ্রিল ২০১৭ থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত) ইতিমধ্যে একনেকে অনুমোদিত হয়েছে। 

তিনি আরো জানান, প্রকল্পটির প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে ৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী দেশের ৯টি স্থানে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। চলতি বছরের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক এসব কেন্দ্র দৃশ্যমান করার পরিকল্পনা রয়েছে।


মন্তব্য