kalerkantho


ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর তালিকাভুক্ত করার দাবি রাজবংশীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ মে, ২০১৮ ০৪:৪৩



ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর তালিকাভুক্ত করার দাবি রাজবংশীদের

সরকারের করা ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর তালিকা থেকে বাদ পড়া রাজবংশীরা পুনরায় তাদের নাম তালিকাভুক্তের দাবি জানিয়েছে। শিক্ষা ও জীবন-জীবিকাসহ সবদিক থেকে পিছিয়ে পড়া এই জাতির লোকজন নৃগোষ্ঠী হিসেবে সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে গতকাল বুধবার রাজবংশী কল্যান পরিষদের আয়োজনে এক প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন রাজবংশী কল্যান পরিষদের উপদেষ্টা মন্মমথনাথ চৌধুরী রাজবংশী। প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।

প্রধান আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক মেসবাহ কামাল। বিশেষ অতিথি ছিলেন কাজী রোজি এমপি, মো. হাফিজুর রহমান এমপি ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রাজবংশী কল্যান পরিষদের সভাপতি আশোক বিশ্বাস। গবেষণা ও উন্নয়ন কালেকটিভের (আরডিসি) সহযোগীতায় এ প্রতিনিধি সভায় বিভিন্ন অঞ্চলের রাজবংশী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, পুরাতন ক্ষৃদ্র নৃগোষ্ঠীর তালিকায় রাজবংশী জাতির নাম ছিল। সর্বশেষ যে তালিকা করা হয়েছে সেখানে এই জাতির নাম নেই। ফলে আদিবাসী হিসেবে এই জাতির লোকজন যেসব সুযোগ সুবিধা পাওয়ার কথা তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এই জাতির নিজস্ব ভাষা ও বর্ণ রয়েছে। ক্ষৃদ্র নৃগোষ্ঠীর তালিকা থেকে বাদ পড়ায় এখন নিজের ভাষা ও বর্ণের মাধ্যমে শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এই জাতির লোকজন।

এ ছাড়াও সরকারিভাবে তাদের জন্য পাঠ্যপুস্তক সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। সরকারি চাকরিতে ক্ষুত্র নৃগোষ্ঠীর জন্য কোটা ব্যবস্থা রয়েছে। কিন্তু রাজবংশীরা এ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।



মন্তব্য